ভোট গণনা বন্ধ করতে বললেন ট্রাম্প

15

নাটকীয়ভাবে সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমে ভোট বন্ধের আহবান জানিয়েছেন বর্তমান মার্কিন প্রেসিডেন্ট এবং রিপাবলিকান প্রার্থী ডোনাল্ড ট্রাম্প। তবে এটি নিশ্চিত করে ট্রাম্প বলেননি কোনো রাজ্যের ভোট গণনা বন্ধ করতে হবে। এদিকে আরেকটি পোস্টে ট্রাম্প লেখেন, নির্বাচনের দিন পার হয়ে যাওয়ার পর যে ভোট( মেইল ভোট) আসবে তা গণনা বন্ধ করতে হবে।

এদিকে, ট্রাম্পের কয়েকশ সশস্ত্র সমর্থক বলছেন ভিন্ন কথা। প্রত্যেকটি ভোট পুনরায় গণনার দাবিতে যুক্তরাষ্ট্রের বিভিন্নস্থানে মিছিল করছেন ট্রাম্প সমর্থকরা। নিউইয়র্কের বিভিন্নস্থনে অবস্থান নিয়েছেন আন্দোলনকারীরা। বিক্ষোভ হয়েছে শিকাগো আর ফিলাডেলফিয়াতেও।

অন্যদিকে, অ্যারিজোনা অঙ্গরাজ্যে মেরিকোপা কাউন্টির একটি ভোট গণনা কেন্দ্রের বাইরে রিপাবলিকান সমর্থক বিক্ষোভকারীরা অবস্থান নেওয়ার পর ভোট গণনা বন্ধ নিয়ে দ্বিধায় পড়েছে কর্তৃপক্ষ। ভোট চুরি বন্ধ করার দাবি জানিয়ে বিক্ষোভ করেছে। অ্যারিজোনার ভোট কেন্দ্রে ট্রাম্পের বেশ কয়েকজন সমর্থক অস্ত্র নিয়ে সহিংসতার চেষ্টা করার খবর জানিয়েছে আন্তর্জাতিক গণমাধ্যমগুলি।

এদিকে  মার্কিন যুক্তরাষ্ট্রের প্রেসিডেন্ট নির্বাচনে ৫ টি বাদে অন্য সব অঙ্গরাজ্যের ফলাফল এরই মধ্যে ঘোষণা করা হয়েছে। তাতে ডেমোক্রেটিক প্রার্থী জো বাইডেন এগিয়ে থাকলেও বাকি পাঁচ অঙ্গরাজ্যের ফলাফল পাওয়ার আগে নিশ্চিত কিছু বলা যাচ্ছে না বলে জানিয়েছে মার্কিন গণমাধ্যম।

আন্তর্জাতিক গণমাধ্যম আল-জাজিরা ও ফক্স নিউজ জানায়, এখন পর্যন্ত ৪৫টি অঙ্গরাজ্য থেকে পাওয়া ৪৭৮টি ইলেক্টোরাল কলেজের মধ্যে ২৬৪টি গেছে বাইডেনের ঘরে। প্রতিদ্বন্দ্বী রিপাবলিকান প্রার্থী ডোনাল্ড ট্রাম্প পেয়েছেন ২১৪ টি ইলেক্টোরাল।

যুক্তরাষ্ট্রে প্রেসিডেন্ট হওয়ার জন্য ৫৩৮টি ইলেক্টোরাল কলেজের মধ্যে লড়াই চলছে দুই প্রার্থীর। ছয়টি ইলেক্টোরাল পেলেও জয়ের ‘ম্যাজিক ফিগার’ ২৭০টি ইলেক্টোরাল পেয়ে যাবেন বাইডেন। সে জন্য বাকি পাঁচ অঙ্গরাজ্যের ফলের দিকে তাকিয়ে থাকতে হচ্ছে তাকে। এর মধ্যে যেকোনো একটিতে জয় পেলেই চলবে তার।

এখন পর্যন্ত ভোটের ফলাফল ঘোষণা করতে না পারা ৫ অঙ্গরাজ্য হলো-জর্জিয়া, নেভাদা, নর্থ ক্যারোলিনা, পেনসিলভানিয়া ও আলাস্কা। রাজ্যগুলোতে মোট ইলেক্টোরাল কলেজ রয়েছে ৬০টি।

যুক্তরাষ্ট্রের ভোট নিয়ে বার্তা সংস্থা এপি থেকে প্রাপ্ত তথ্য তুলে ধরে আল-জাজিরার হিসেবে বলা হয়েছে, অঙ্গরাজ্য পাঁচটির চারটিতেই এগিয়ে ট্রাম্প। একটিতে এগিয়ে বাইডেন।

জর্জিয়া: অঙ্গরাজ্যটিতে রয়েছে ১৬টি ইলেক্টোরাল। সেখানে শতভাগ ভোট গণনা হয়েছে। তাতে দেখা যাচ্ছে ৪৯.৬২ শতাংশ ভোট নিয়ে এগিয়ে ট্রাম্প, আর বাইডেন পেয়েছেন ৪৯.১৫ শতাংশ। এখন আনুষ্ঠানিক ঘোষণার পালা।

নেভাদা: এই অঙ্গরাজ্যে ইলেক্টোরাল ৬টি। ৭৪.৭৬ শতাংশ ভোট গণনায় দেখা যাচ্ছে ৪৯.৩৩ শতাংশ নিয়ে এগিয়ে বাইডেন। ৪৮.৬৯ শতাংশ নিয়ে খুব কাছাকাছি রয়েছেন ট্রাম্প।

নর্থ ক্যারোলিনা: ১৫ ইলেক্টোরালের এই অঙ্গরাজ্যেও ভোট গণনা শতভাগ হয়েছে। এর মধ্যে ৫০.০৯ শতাংশ নিয়ে এগিয়ে ট্রাম্প; বাইডেন পেয়েছেন ৪৮.৬৯ শতাংশ ভোট।

পেনসিলভানিয়া: গুরুত্বপূর্ণ এই অঙ্গরাজ্যে ইলেক্টোরাল ২০টি। এখানে ৮৬.৭২ শতাংশ ভোট গণনা শেষে দেখা যাচ্ছে, ৫০.৭২ শতাংশ ভোট নিয়ে এগিয়ে ট্রাম্প, বাইডেন পেয়েছেন ৪৮.১৩ শতাংশ ভোট।

আলাস্কা: মাত্র তিনটি ইলেক্টোরাল। অর্ধেকের কিছু বেশি ভোট গণনায় দেখা যাচ্ছে, ৬৫.১১ শতাংশ নিয়ে অনেক এগিয়ে ট্রাম্প। বাইডেন পেয়েছেন মাত্র ৩৩.৫১ শতাংশ ভোট।