ভবদহের জলাবদ্ধতার স্থায়ী সমাধানে যশোর মশিয়াহাটীতে মানববন্ধন কর্মসূচীর ডাক

33

শেখ আলী আকবার সম্রাট :

যশোরের অভয়নগরে জলাবদ্ধ এলাকার ভবদহ অঞ্চলের পানি দ্রুত নিষ্কাশন এবং জলাবদ্ধতার স্থায়ী সমাধানের দাবিতে ভবদহ পানি নিষ্কাশন সংগ্রাম কমিটির ডাকে, আগামী ৫-অক্টোবর সোমবার সকাল ১০ টায় অভয়নগর উপজেলার মশিয়াহাটী বহুমুখী মাধ্যমিক বিদ্যালয়ের জলাবদ্ধ মাঠে স্থায়ী সমাধানে লক্ষ্যে এক কর্মসূচি পালন করা হবে। দ্রুত পানিনিষ্কাশন ও জলাবদ্ধতার স্থায়ী সমাধানের দাবিতে এই মানববন্ধন কর্মসূচীতে,ভবদহ এলাকার জলাবদ্ধতায় ভুক্তভোগী লোক অবস্থান করবে।

এছাড়া গতকাল বৃহস্পতিবার ভবদহ পানি নিষ্কাশন সংগ্রাম কমিটির সভায় এই সিধান্ত নেওয়া হয়েছে। অভয়নগরের নওয়াপাড়ায় ইনস্টিটিউট মিলনায়তনে এই সভা হয়েছে। সংগ্রাম কমিটির আহ্বায়ক রণজিৎ কুমার বাওয়ালি এতে সভাপতিত্ব করেন।

ভবদহ পানিনিষ্কাশন সংগ্রাম কমিটির উপদেষ্টা   ইকবাল কবির জাহিদ বলেন, পানি উন্নয়ন বোর্ডের (পাউবো) ব্যর্থতায় ভবদহের শতাধিক গ্রাম তলিয়ে গিয়েছে।ক্ষতিগ্রস্ত সব পরিবারের খাদ্যনিরাপত্তা নিশ্চিত করতে হবে এবং ক্ষতিগ্রস্ত ঘর পুনর্নির্মাণ করতে হবে। তার স্থায়ী সমাধানের জন্য বিল কপালিয়ায় টিআরএম জোয়ারধারার চালু করতে হবে। এই দাবি আদায়ের লক্ষ্যে আগামী ৫-অক্টোবর সোমবার যশোর মশিয়াহাটীতে মানববন্ধন করা হবে।

সভায় যশোরের অভয়নগর ও মণিরামপুর উপজেলার ১১ টি জলাবদ্ধতার গ্রামের অর্ধশতাধিক মানুষ যোগ দেন।এতে সংগ্রাম কমিটির উপদেষ্টা ইকবাল কবির জাহিদ,  সদস্য সচিব চৈতন্য কুমার পাল, সদস্য ইনতাজ আলী,কানু বিশ্বাস, শিবপদ বিশ্বাস, গাজী ইকবাল কবির, শহিদুল হক,  কামরুল ইসলামসহ আরো কয়েকজন বক্তব্য রাখেন।

ডুমুরতলা গ্রামের  জলাবদ্ধতায়  থাকা  বন্দীরা  বলেন, ঘরের মধ্যে জল উঠায়  এখন  ঘরে থাকা যাচ্ছে না। টিআরএম ছাড়া বাচার পথ নেই। আন্দোলন ছাড়া টিআরএম হবে না।  এছাড়া সরখোলা গ্রামের ৷  পানি বন্দী মানুষেরা বলেন,এলাকার শতাধিক গ্রাম পানিতে প্লাবিত হয়েছে ঘরের মধ্যে পানি উঠে গিয়েছে। প্রতিদিন পানি বাড়ছে।।  দ্রুত পানি সরানোর ব্যবস্থা না হলে পরিস্থিতি ভয়াবহ আকার ধারণ করবে।।

পানি নিষ্কাশনের দাবিতে মানববন্ধন কর্মসূচি পালিত হলে আমরা সবাই সেখানে উপস্থিত হয়ে, এই জলাবদ্ধতার থেকে মুক্তি পেতে প্রয়োজনে আরও বড় কর্মসূচীর মধ্যে যাবো।