ধর্ষণের পর মামলা : অতপর বিয়ে

62

স্ত্রীর খোজ রাখেনি বাগেরহাটের শিক্ষা সহকারি পরিদর্শক রবিউল ইসলাম

 

মেহেদী হাসান ইরান, স্টাফ রিপোর্টার

বাগরেহাটের শিক্ষা সহকারি পরিদর্শক রবিউল ইসলামের বিরুদ্ধে স্ত্রী কে অসহনি নির্যাতন, যৌতুক দাবি ও শারিরীক নির্যাতনের অভিযোগ পাওয়া গেছে জীবন বাচাতে ও স্বামীর সংসার ঠিক রাকতে মাধ্যমিক ও উচ্চমাধ্যমিক শিক্ষা অধিদপ্তরের মহাপরিচালকের নিকট এক আবেদন করেছেন অভয়নগর উপজেলার ৭নং শুভরাড়া ইউনিয়নের বাশুয়াড়ী গ্রামের জামাল তরফদারের মেয়ে নাসরিন সুলতানা । অভিযোগ থেকে জানাযায় মোবাইলে প্রেমের সম্পর্কে পর বিয়ের প্রলভন দেখিয়ে ২৮/১২/২০১৪ ইং তারিখে আরাম বাগ মতিঝিলে ১৫০/১ নং বাসায় নিয়ে তার সাথে শারিরিক সম্পর্ক স্থাপন করে । এর পর থেে সে ইচ্ছার বিরুদ্ধে একাধিক বার হোটেলে, বাসায় তার সাথে শারিরিক সম্পর্ক করতে থাকে। এক পর্যয়ে ১৮/০৮/২০১৬ তারিখে রবিউল ইসলামের ঔরসজাত সন্তান তার গর্ভে আসলে এম আর করাতে বাধ্য করে। অভিযোগে তিনি আরো উল্লেখ করেন এম,আর করার পর সে আমার সাথে সব যোগাযোগ বন্ধ করে দেয়। পরে আমি নারী ও শিশু নির্যতন দমন আইনে ২০০০(সংসধনী ২০০৩) এর ৯(১) তৎসহ দন্ডবিধি ১৯৮০ এর ৩১৩ ধারায় মতিঝিল থানায় ধর্ষণ ও গর্ভপাত করার অপরাধে ২২(৫)১৭ নং মামলা দায়ের করি। ২৩/০৬/২০১৭ তারিখে গ্রেফতার হয়ে জেল হাজতে চলেযায়। ০৫/০৭/২০১৭ ইরেজী তারিখে সে বিয়ে করে স্ত্রীর মর্যাদা দিবে আদালতে লিখিত দিলে তার জামিন হয়। পরে ২৭/০৬/২০১৭ তারিখে ১০,০০,০০০/- টাকা দেলমহর ধার্যে কামিনের মাধ্যমে উভয় পরিবারের আপষ মতে বিবাহ হয়। যা ম্যাজিষ্ট্রেট কোর্টের মাধ্যমে এভিডেভিট করা হয়। বিয়ের পর বাগেরহাটে রবিউল ইসলাম তার কর্মস্থলে এনে অমানুষিক নির্যাতন করতে থাকে একাধিকবার বাগেরহাটের হাসপাতালে তার চিকিৎসা নিতে হয়েছে। সচেতন মহল মনে করেন সরকাবি চাকরি অথাৎ বাংলাদেশ সার্ভিস রুলস পার্ট ১ বিধি ৭৩ (নোট-২) এবং জন প্রসাসন অফিস মেমোরান্ডেম নং ই ডি (রেজি: ৭) এস ১২৩/৭৮/১১৫(৫০০) উল্লেখ রয়েছে কোন সরকারি কর্মকর্তা ফৌজদারি অপরাধে কারণে গ্রেফতার হইলে বা আদালতে অত্ম সমারপণের পর জামিনে মুক্তি লাভ করিলে ও সাময়িক বরখাস্ত হিসাবে বিবেচিত হইবেন । তবে অদ্যবদি সরকার পক্ষকে কোন পদক্ষেপ নিতে দেখাযায়নি।এ বিষয়ে ভুক্তভুগি নাসরিন সুলতানা জানালেন কতৃপক্ষকে না জানিয়ে ৩ মাসের ও অধিক সময় অফিসে না থাকার কারণে রবিউল ইসলামকে কারণ দর্ষানোর নোটিস দিয়েছে তার এক কপি আমার ঠিকানায় এসেছে। তিনি আরো জানার আমার সংসার ঠিক রাখতে আদালতে যাওয়া ছাড়া আর কোন উপায় নেই।