মানবতার ফেরিওয়ালা ও উন্নয়নের রুপকার এমপি শাহে আলম

56
হিমেল সরকার/ অমিয় বিশ্বাস
বীর মুক্তিযোদ্ধা,  সাতলা ইউনিয়নের সাবেক চেয়ারম্যান ও সাবেক সাতলা ইউনিয়ন আওয়ামী লীগ সভাপতি মৃতঃ ফজলুল হক হাওলাদার এর সুযোগ্য পুত্র মোঃ শাহিন হাওলাদার (কার্যকরী সদস্য, উজিরপুর উপজেলা আওয়ামী লীগ) এর সাথে সামগ্রিক উন্নয়ন  নিয়ে  কথা হলে  তিনি বলেন,
বরিশাল জেলার মধ্যে উজিরপুর ও বানরীপাড়া দুটি উপজেলা নিয়ে গঠিত আসনের মাননীয় সংসদ সদস্য যিনি সাবেক সভাপতি বাংলাদেশ ছাত্রলীগ জননেতা শাহে আলম. যার হাত ধরে এগিয়ে যাচ্ছে গোটা উজিরপুর  উপজেলা তথা সাতলা ইউনিয়নের উন্নয়নের চিত্র।  মাননীয় এমপি মহোদয়ের মাধ্যমে সাতলা ইউনিয়নে ৫টি মসজিদ মন্দিরের উন্নয়নের জন্য ১৭ লক্ষ টাকা GSIDP প্রকল্পের মাধ্যমে প্রথম পর্যায়ে প্রদান করা হয়েছে যা ইতিমধ্যে টেন্ডার হয়ে গিয়েছে এবং  দ্বিতীয় পর্যায়ে আরো ৮টি মসজিদ মন্দিরের উন্নয়নের জন্য প্রস্তাবনা প্রদান করা হয়েছে। শুধু সাতলা নয় সমস্ত ইউনিয়নে এই প্রকল্প দেওয়া হয়েছে। উজিরপুর তথা সাতলায় সচ্ছ ভাবে  বয়স্ক/পঙ্গু/বিধবা ভাতার কার্ড অসহায় মানুষের মাঝে প্রদান করা হয়েছে। সাতলা ইউনিয়নের শিবপুর গ্রামের নবীন মাধ্যমিক বিদ্যালয়ের জন্য মাঠ ভরাট, ঘাটলা নির্মান এবং  দীর্ঘদিনের চাহিদা বিশ্বাস বাড়ী পর্যন্ত প্রায় ১ কিলোমিটার নতুন রাস্তা নির্মাণ করা হয়েছে(TR উন্নয়ন ২য় পর্যায়)। শিবপুর নবীন মাধ্যমিক বিদ্যালয়ে প্রায় ২.৫ কোটি টাকা ব্যয়ে একটি সাইক্লোন সেন্টার নির্মাণের প্রস্তাবনা পাশ করা হয়ছে যা খুব শীগ্রই বাস্তবায়নের কাজ শুরু হবে। উজিরপুর এর রাস্তায় স্ট্রিট লাইটের ব্যবস্থা করেছেন।উজিরপুরে ২০০ অধিক গভীর  নলকূপ যার মধ্যে শুধু  সাতলায়  প্রথম ধাপে ৩৪টি টিউবওয়েল যা মসজিদ, মন্দির, বাজার ও ঘন বসতি  পরিবারের মাঝে বিশুদ্ধ পানি সরবরাহের জন্য  বিতরণ করা হয়েছে যার কাজ ও সম্পন্ন হইছে  এবং আরো ১০০ অধিক টিউবওয়েল বাস্তবায়নের পথে। সাতলার সমস্ত কাঁচা/আধা পাকা  রাস্তা যাহার ID number আছে সেগুলো মাননীয় এম পি মহোদয় DO লেটার প্রদান  করেছেন  এবংযাহা  টেন্ডারের জন্য DPP তে অর্ন্তভুক্ত করা হয়েছে। প্রত্যেক শিক্ষা প্রতিষ্ঠানে বঙ্গবন্ধু কর্ণার তৈরি  করা হয়েছে। শিক্ষা প্রতিষ্ঠানে কোমলমতি শিক্ষার্থীদের জন্য খেলার সামগ্রী বিতরণ করা হয়েছে।মাননীয় সংসদ সদস্য প্রতিটি শিক্ষা প্রতিষ্ঠান ডিজিটাল করন,  সৎ,  শিক্ষিত ব্যক্তির দ্বারা ম্যানেজিং কমিটি গঠন এবং সচ্ছ ও মেধার  ভিত্তিতে শিক্ষক ও কর্মচারী নিয়োগের ব্যবস্থা করে যাচ্ছেন। উজিরপুরে ২৫টি প্রাথমিক বিদ্যালয়ের নতুন ভবন  নির্মাণ কাজ চলমান যার মধ্যে সাতলা ইউনিয়নে ২টি আলামদি ও পটিবাড়ী। ২য় পর্যায়ে আরো নতুন ভবন নির্মাণ এর কাজ প্রক্রিয়াধীন।বহুতল মাদ্রাসা ভবন নির্মাণ করা হয়েছে। উজিরপুর বানারীপাড়া দুই উপজেলার প্রানকেন্দ্রে অত্যাধুনিক মসজিদ নির্মাণ এর কাজ উদ্ভোদন করা হয়েছে।  উজিরপুর উপজেলায় বঙ্গবন্ধুর মোড়াল নির্মানের কাজ উদ্ভোদন   করা হয়েছে এবং বানারীপাড়ায় নির্মাণ শেষ হয়েছে। উজিরপুর পৌরসভায় নতুন পানির লাইন স্থাপন  করা হয়েছে। সাতলা মাধ্যমিক বিদ্যালয় সংলগ্ন   এবং হারতা ডাক বাংলা সংলগ্ন  নদীর উপর ৯০ মিটার ব্রিজ নির্মাণের কাজ প্রক্রিয়াধীন। হারতা টু নাতার কান্দি পাকা রাস্তা নির্মাণ এর কাজ শেষের পথে।  উজিরপুর থানায় পুলিশ প্রশাসনের নির্বিঘ্নে চলাচলের জন্য নতুন একটি পিকাপ প্রদান। উজিরপুর  বানরীপাড়া দুটি উপজেলায় শতভাগ  বিদ্যুতের  ব্যাপারে ও নিরলস কাজ করে যাচ্ছেন।
মহামারী করোনার শুরু থেকে মাননীয় এমপি মহোদয় ঢাকা ছেড়ে তার নিজ এলাকায় অবস্থান করে এবং জীবনের ঝুঁকি নিয়ে প্রত্যেকটি ইউনিয়নে সরকারি ও ব্যক্তিগত তহবিলের মাধ্যমে অসহায় এর মাঝে ত্রাণ বিতরণ এর মধ্যে দিয়ে একজন সম্মুখ যোদ্ধা হিসেবে কাজ করে যাচ্ছেন। ঘূর্ণিঝড় আম্ফানে ক্ষতিগ্রস্ত সাতলার শিবপুরের বেড়িবাঁধ তাৎক্ষণিকভাবে মাননীয় এমপি মহোদয় সংস্কারের ব্যবস্থা গ্রহণ করেন এবং যার কাজ প্রায় শেষের পথে।আরো অনেক গুলি বড় প্রকল্প  খুব শীঘ্রই শুরু হবার কথা থাকলে ও মহামারী করোনার কারনে একটু বিলম্ব হচ্ছে তার ভিতরে যেমন উজিরপুর টু সাতলা(ভায়া ওটরা, হারতা)  এবং জয়স্রী টু সাতলা কান্দি পর্যন্ত  রাস্তা (ভায়া সানুহার, জল্লা) উন্নয়নের কাজ টেন্ডারের জন্য প্রক্রিয়াধীন।
সর্বশেষ আওয়ামী লীগ নেতা মোঃ শাহিন হাওলাদার বলেন, উজিরপুর বানরীপাড়ার গর্বিত সন্তান মাননীয় সংসদ সদস্য জননেতা  শাহে আলম এমপি মহোদয়ের হাত ধরে এগিয়ে যাচ্ছে উজিরপুর  বানরীপাড়া উপজেলা তথা সাতলা ইউনিয়ন। মাননীয় এমপি মহোদয়  সবসময় তার নিজ নির্বাচনী এলাকার সর্বস্তরের জনগণের কথা ভাবেন। আমরা সাতলা ইউনিয়নবাসী তথা উজিরপুর বানরীপাড়া উপজেলার সর্বস্তরের জনগণ এমপি মহোদয়ের সুস্বাস্থ্য ও দীর্ঘায়ু কামনা করি।