রামপালে ছাত্রলীগ নেতার বিরুদ্ধে এক তরুণীকে যৌন নির্যাতনের অভিযোগ

12

মোস্তাফা কামাল, রামপাল প্রতিনিধি

রামপালে ছাত্রলীগ নেতা ও আবুল কালাম ডিগ্রি কলেজের লাইব্রেরিয়ানের বিরুদ্ধে বিয়ের প্রলোভন দিয়ে উচ্চ শিক্ষিত এক তরুনীতে ৩ বছর ধরে যৌন নির্যাতন করার অভিযোগ পাওয়া গেছে। এ ঘটনায় রামপাল থানায় নারী ও শিশু নির্যাতন দমন আইনে একটি মামলা দায়ের হয়েছে। অভিযোগে জানা গেছে, উপজেলার ইসলামাবাদ গ্রামের মৃত খোকন ইকবালের পুত্র ইমরান কুদরতী (২৮) সাথে একই উপজেলার ভাগা গ্রামের জনৈক এক ব্যক্তির উচ্চ শিক্ষিতা কন্যার সাথে দীর্ঘ ৩ বছর ধরে প্রেমের সম্পর্ক গড়ে ওঠে। এরপর বিভিন্ন সময় তাকে বিয়ের প্রলোভন দেখিয়ে বিভিন্ন আত্মীয়ের বাড়িতে নিয়ে স্বামী-স্ত্রী’র মত মেলামেশা শুরু করে। ওই তরুনী লম্পট ইমরানকে বিবাহের জন্য চাপ প্রয়োগ করলে সে আজ না কাল করে ঘোরাতে থাকে।

সর্বশেষ গত ৩ জুন ২০২০ তারিখ মুঠোফোনে বিবাহের ব্যাপারে জরুরী কথা আছে বলে ঢাকা থেকে ডেকে নিয়ে এসে ওই দিন রাত অনুমান ৯ টার সময় বড়দিয়া এলাকার জনৈক বাচ্চুর ঘেরের বাসায় নিয়ে আবার জোর পূর্বক শারীরিক সম্পর্ক করার চেষ্টা করে। বিবাহের ব্যপারে বেশি পিড়াপিড়ির এক পর্যায়ে ৪ জুন সকাল বেলায় ইমরান ওই তরুনীকে তার বাড়িতে নিয়ে রেখে পালিয়ে যায়। ওই সময় ওই তরুনী ইমরানের আত্মীয় স্বজনরা তাকে মারপিট করে তাড়িয়ে দেয়।

অভিযোগের ব্যপারে রামপাল উপজেলা ছাত্রলীগের শিক্ষা ও পাঠচক্র বিষয়ক সম্পাদক কুদরতী ইমরানের ব্যবহৃত নম্বর মুঠোফোনে বক্তব্য নেওয়া চেষ্টা করলে তার নম্বরটি বন্ধ পাওয়া যায়। এ ব্যাপারে মামলার তদন্তকারী কর্মকর্তা এসআই আনসার আলী জানান, ওই তরুনী মামলার পূর্বেও ২ টি অভিযোগ করেন। যার একটি প্রসিকিউশন চেয়ে আদালতে প্রেরণ করা হয়েছে। সেই অভিযোগে ৪ জনকে অভিযুক্ত করে আবেদন করা হয়েছে। এ বিষয়ে রামপাল থানার ওসি মোঃ দেলোয়ার হোসেনের কাছে জানতে চাইলে তিনি মামলা দায়েরের বিষয়টি নিশ্চিত করে বলেন, আসামী ধরার জোর চেষ্টা চলছে।