আলফাডাঙ্গায় ৬ বস্তা ত্রানের চাল সহ ভ্যান চালক আটক

11
আরিফুর রহমান সেতু, সিনিয়র স্টাফ রিপোর্টার
ফরিদপুরের  আলফাডাঙ্গায় ৬ বস্তা ত্রানের চাল সহ এক  ভ্যান চালককে  আটক করেছে পুলিশ।
মঙ্গলবার (১৬ জুন)  দুপুর দেড়টা নাগাদ উপজেলার বানা ইউনিয়ন পরিষদ থেকে ২০০ গজ দুরে এই ত্রানের চাল আটক করে থানায় নিয়ে যাওয়া হয়।  এ সময় ৬ বস্তা চাল সহ ভ্যান চালক এরশাদ (৩০),  বানা ইউনিয়ন পরিষদ চেয়ারম্যান হাদী হুমায়ুন কবীর বাবু,  ২ নং ওয়ার্ড মেম্বার রাজ ইসলাম খোকন এবং বানা ইউ পি সচিবকে থানায় নিয়ে যাওয়া হয়।
 সকাল থেকে বানা  ইউনিয়ন পরিষদে ঘুর্নিঝড় আম্ফানের ক্ষতিগ্রস্তদের জন্য বরাদ্দকৃত চাল বিতরন করা হচ্ছিল। এলাকাবাসীর অভিযোগ ছিল যে চাল সঠিকভাবে বিতরন হচ্ছে না। এমতাবস্থায় ৬ বস্তা চাল ভ্যানে নিয়ে যাওয়ার সময় শাহাজাহানের মুদি দোকানের সামনে এলে স্থানীয়রা জিজ্ঞেস করেন এটা কিসের চাল? সদুত্তর না দিতে পারায় এবং তাদের সন্দেহ হলে উপজেলা প্রশাসনকে অবহিত করলে উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা এসে হাতে নাতে চাল সহ ভ্যানচালককে আটক করেন। পরবর্তীতে  আলফাডাঙ্গা থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা রেজাউল করীম  ঘটনাস্থলে এসে ভ্যানচালক সহ ভ্যান ও চাল থানায় নিয়ে যান।
এ বিষয়ে বানা ইউনিয়ন পরিষদ  চেয়ারম্যান হাদী হুমায়ুন কবীর সি আই এন টিভি ২৪ কে জানান,  এ বিষয়ে আমি অবগত নই। আজ ঘুর্নিঝড়ের বরাদ্দকৃত ১ টন চাল ইউনিয়ন পরিষদ এর সামনে ক্ষতিগ্রস্তদের   দেয়া হচ্ছিল।    আর চাল দেয়ার সময় আমরা বস্তা না ভেঙ্গে তিনজনকে ৩০ কেজির  এক বস্তা চাল দিয়ে দেই। তারা পরে এটা পরিষদের বাইরে গিয়ে ভাগ করে নিয়ে যায়। এ বিষয়ে আমি এর চেয়ে বেশি কিছু জানি না। আমি এখনো পর্যন্ত থানায় আছি।  কে বা কারা আমার সুনামের প্রতি ঈর্ষান্বিত হয়ে আমার বিরুদ্ধে এই ষড়যন্ত্রমূলক  ঘটনা ঘটিয়েছে। আমি এর সুষ্ঠু তদন্ত চাই।
আলফাডাঙ্গা থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা রেজাউল করীম সি আই এন টিভি ২৪ কে  জানান,  ঘটনা তদন্তাধীন, সত্যতা যাচাই করে পরবর্তী পদক্ষেপ নেয়া হবে।
এ প্রতিবেদন লেখা পর্যন্ত ইউ পি চেয়ারম্যান সহ, সচিব, ২ নং ওয়ার্ড এর মেম্বার ও ভ্যান চালক থানায় রয়েছেন।