গোপালগঞ্জে পুলিশ কর্মকর্তার পিটুনিতে কৃষকের মৃত্যু : তদন্তটীম গঠন

88
নাদিম সিকদার , কোটালীপাড়া থানা প্রতিনিধি 

গোপালগঞ্জের কোটালীপাড়ায় এএসআই শামীম উদ্দিনের পিটুনিতে নিখিল তালুকদার (৩৬) নামে এক কৃষকের মৃত্যুর অভিযোগ পাওয়া গেছে। গত মঙ্গলবার তাস খেলার আসর থেকে ধরে পিটুনি দিলে তিনি গুরুতর আহত হন। বুধবার বিকেলে ঢাকার মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে নিয়ে যাওয়ার পথে মারা যান তিনি। নিখিল তালুকদার কোটালীপাড়া উপজেলার রামশীল গ্রামের নীলকান্ত তালুকদারে ছেলে।
শুক্রবার সকালে সরেজমিনে গেলে, নিখিলের স্ত্রী ইতি তালুকদার সাংবাদিকদের বলেন, ‘জমির ধান কাটা ও ধান গোলায় তোলা হয়েছে। কাজ নেই। আমার স্বামী অবসর সময় কাটাচ্ছিলেন। মঙ্গলবার বিকেলে রামশীল বাজারের ব্রিজের পূর্ব পাশে আমার স্বামীসহ চারজন বসে তাস খেলছিলেন। এ সময় কোটালীপাড়া থানার এএসআই শামীম উদ্দিন একজন ভ্যানচালক ও এক যুবককে নিয়ে সেখানে যান। গোপনে মোবাইল ফোনে তাস খেলার দৃশ্য ধারণ করেন। তারা বিষয়টি টের পেয়ে খেলা রেখে দৌড়ে পালানোর চেষ্টা করে। অন্য তিনজন পালিয়ে গেলেও আমার স্বামীকে ধরে মারধর শুরু করে। একপর্যায়ে হাঁটু দিয়ে তার পিঠে আঘাত করা হয়। এতে আমার স্বামীর মেরুদণ্ডে তিনটি হাড় ভেঙে যায়। তাকে প্রথমে বরিশাল শেরেবাংলা মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে ভর্তি করা হয়। সেখানে অবস্থার অবনতি হয়। পরে তাকে ঢাকা মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে নিয়ে যাওয়ার পথে সে মারা যায়।’
ইতি তালুকদার আরও বলেন, আমার স্বামী অপরাধ করে থাকলে তাকে ধরে নিয়ে যেত। বিচার হতো। এভাবে কেন তাকে পিটিয়ে মেরে ফেলা হলো! এখন আমার দুই শিশুসন্তানের ভবিষ্যত কী হবে। আমি এ হত্যার বিচার চাই।
নিহত নিখিলের বাবা নিলকান্ত তালুকদার বলেন, পুলিশ হাটু দিয়ে আমার ছেলের কোমরের হার ভেঙ্গে গুরিগুরি করে দিয়েছে। আমি আমার ছেলে হত্যার বিচার চাই।
স্থানীয় ইউপি চেয়ারম্যান খোকন বালা বলেন, শুনেছি পুলিশের মারপিটের কারণে নিখিলের মেরুদন্ডের তিনটি হার ভেঙ্গে গিয়ে মৃত্যু হয়েছে, নিখিল এলাকায় ভালো ছেলে হিসেবে পরিচিত ছিল। এভাবে পিটিয়ে মারাটা দুঃখজনক। পুলিশ আইনের লোক হয়ে এমন বেআইনি কাজ করলে জনগণ কোথায় গিয়ে দাঁড়াবে?
এ বিষয়ে কোটালীপাড়া থানার এএসআই শামিম উদ্দিনের সাথে মোবাইলে কথা হলে তিনি বলেন, ‘আমি স্যারের রুমে এর পর লাইনটি কেটে দেন।’
কোটারীপাড়া থানার অফিসার ইনচার্জ ওসি শেখ লুৎফর রহমান বলেন, নিখিল তালুকদার নিহতের ঘটনায় গোপালগঞ্জের এএসপি সার্কেল একটি তদন্ত কমিটি গঠন করেছে এবং তদন্ত শেষে ব্যবস্থা নেয়া হবে বলে জানিয়েছে।