করোনায় আক্রান্ত হলেন মুন্সীগঞ্জ জেলা প্রশাসক , জেলায় মোট আক্রান্ত ৪০০

25
আরিফুর রহমান সেতু, সিনিয়র ষ্টাফ রিপোর্টার 
 রবিবার বিকেলে নিপসম ( ন্যাশনাল ইন্সটিটিউট অব প্রিভেনটিভ এ্যান্ড  সোশ্যাল মেডিসিন) থেকে আসা তথ্য অনুযায়ী করোনা শনাক্ত হয়েছেন  মুন্সীগঞ্জের জেলা প্রশাসক মো. মনিরুজ্জামান তালুকদার (৪৫)। করোনা পজিটিভ এর  তথ্য পাওয়ার পর  তিনি তার  সরকারি বাসভবনে আইসোলেশনে রয়েছেন। তবে তার দেহে এখনও কোভিড-১৯ এর কোন উপসর্গ পরিলক্ষিত হয়নি।  কিছুদিন আগেই অতিরিক্ত জেলা ম্যাজিস্ট্রেট খান মো. নাজমুস সোয়েবের করোনা পজেটিভ আসে এবং তার সাথে মিটিং করার কারণে গত ১৪ ই মে জেলা প্রশাসক সহ  জেলা প্রশাসনের ২৭ জনের নমুনা সংগ্রহ করে পরীক্ষার জন্য নিপসম ( ন্যাশনাল ইন্সটিটিউট অব প্রিভেনটিভ এ্যান্ড  সোশ্যাল মেডিসিন) এ  পাঠানো হয়েছিল। নমুনায় প্রাপ্ত ফলাফলে জেলা প্রশাসক ছাড়াও আজ আক্রান্ত হয়েছেন মুন্সীগঞ্জ জেলা প্রশাসনের  স্থানীয় সরকার বিভাগের উপ-পরিচালক এস এম শফিক (৪২)। তিনিও ফলাফল পাওয়ার পর থেকে তার সরকারী বাসভবনে আইসোলেশনে আছেন।
 জেলা প্রশাসক মনিরুজ্জামান তালুকদার মুঠোফোনে সি আই এন টিভি২৪ অনলাইন কে জানান, এখনো আমার দেহে কোনরকম উপসর্গ এখনও দেখা যায়নি। আপনারা সবাই দোয়া করবেন যাতে সুস্থ হয়ে আবার আপনাদের সেবায় ফিরে আসতে পারি।  সবাই বাড়ি থাকুন, স্বাস্থ্য বিধি মেনে চলুন সুস্থ থাকুন।
মুন্সীগঞ্জ জেলা সিভিল সার্জন ডা. আবুল কালাম আজাদ মুঠোফোনে সি আই এন টিভি২৪ অনলাইন কে  জানান,  আজ নিপসম ( ন্যাশনাল ইন্সটিটিউট অব প্রিভেনটিভ এ্যান্ড  সোশ্যাল মেডিসিন) থেকে ২৩৪ টি নমুনার রিপোর্ট এসেছে যার মধ্যে ফলাফল পজেটিভ এসেছে ৩৭ জনের । গত ১৪ এবং ১৫ই মে এর নমুনা অনুযায়ী এই ফলাফল পাওয়া গেছে  যার মধ্যে সিরাজদিখানের ২ জনের ফলোআপ রয়েছে। আরও অন্যান্য উপজেলায় ফলোআপ আছে কিনা খোঁজ নেয়া হচ্ছে। নতুন আক্রান্ত ৩৫ জনের মধ্যে সদর উপজেলায় ১৩ জন, গজারিয়ায় উপজেলায় ৬ জন, সিরাজদিখান উপজেলায় ৫ জন , শ্রীনগর উপজেলায় ৩জন, টঙ্গীবাড়ি উপজেলায় ৫ জন এবং লৌহজং উপজেলায় ৩ জন ।  সব মিলিয়ে জেলায় করোনা শনাক্ত সংখ্যা দাড়াঁল ৪০০।  শ্রীনগরে উপজেলায় নতুন ১ জন সহ জেলায় এ পর্যন্ত সুস্থ হয়েছেন ৫৩ জন।