ঢাকা ইন্টারন্যাশনাল ইউনিভার্সিটির এলিট ইংলিশ ক্লাবের ৪৩ জনের পদত্যাগ

25
ঢাকা ইন্টারন্যাশনাল ইউনিভার্সিটির  এলিট ইংলিশ ক্লাবের সভাপতি, সাধারণ সম্পাদক সহ ৪৩ জন সদস্য পদত্যাগ করেছেন।  বিশ্ববিদ্যালয় কর্তৃপক্ষ সাধারন শিক্ষার্থীদের বাক স্বাধীনতায় হস্তক্ষেপের প্রতিবাদে এলিট ইংলিশ ক্লাবের সবাই গতকাল পদত্যাগ করেন।  ক্লাবের পক্ষ থেকে সাধারন সম্পাদক মোঃ ওমর ফারুক
সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমে পদত্যাগ এবং  ক্লাস বয়কটের ঘোষণা দেন। ঘোষনায় আগামী ৬ ই মে থেকে ১৫ই মে পর্যন্ত সকল অনলাইন ক্লাস এবং পরীক্ষা বয়কট করা হয়।  ঘোষনার স্টাটাস নিচে দেয়া হল।   আমাদের যৌক্তিক দাবি দাওয়া গুলো আমলে না নিয়ে উল্টো পোস্ট গুলো ডিলিট করে দিয়ে সাধারণ শিক্ষার্থীদের বাক স্বাধীনতায় হস্তক্ষেপ করলেন অথরিটি। তারই প্রতিবাদস্বরুপ Elite English Club থেকে পুরো তেতাল্লিশ জন মেম্বার পদত্যাগ করছি। সেই সাথে Elite English Club থেকে সবাই Leave নেব। ক্লাব মেম্বার হিসেবে আমরাও, শিক্ষার্থী হিসেবে আপনারাও।   পরবর্তী নির্দেশনা না দেয়া পর্যন্ত আমরা সর্বোচ্চ সতর্কতা অবলম্বন করবো।
আমাদের প্রতিবাদ দুটোঃ-
১. এলিট ইংলিশ ক্লাব যেহেতু সাধারণ শিক্ষার্থীদের নয়;আনুষ্ঠানিক কোন বিবৃতি না দিয়েই সকল পোস্ট ডিলিট করে সাধারণ শিক্ষার্থীদের বাক স্বাধীনতায় হস্তক্ষেপ করেছেন। তাই এর প্রেসিডেন্ট, ভাইস প্রেসিডেন্ট, জেনারেল সেক্রেটারি সহ সকল সদস্য পদত্যাগ করলাম।
২. Elite English Club যেহেতু অথরিটির। তা-ই সেখানে তারাই থাকুক। আমরা পুরো ইংরেজি বিভাগের ছাত্রছাত্রীরা সেখান থেকে Leave নেব।
সেই সাথে আগামীকাল যেহেতু ডে শিফট এর ক্লাস আছে, এসব ব্যাপারে সাধারণ শিক্ষার্থীদের চার্জ করা হতে পারে। জেনে-বুঝে ওদেরকে এরকম হেনস্তার দিকে ঠেলে দিতে পারি না। সেজন্য—–
আগামীকাল ৬ই মে রোজ বুধবার থেকে ১৫ই মে রোজ শুক্রবার পর্যন্ত যাবতীয় অনলাইন ক্লাস, পরীক্ষার বয়কটের ডাক দিলাম।
আমাদের দাবি না মানা হলে নেক্সট সিদ্ধান্ত এখানেই জানবেন আপনারা।
সাধারণ শিক্ষার্থীদের পক্ষে
মোঃ ওমর ফারুক
ইংরেজি বিভাগ  DIU