সাতক্ষীরায় হোম কোয়ারেন্টেনে থাকা পরিবারের পাশে আসাদুজ্জামান বাবু

9

বদরুজ্জামান খোকা, জেলা প্রতিনিধি সাতক্ষীরা

সাতক্ষীরা সদর উপজেলা পরিষদের বার-বার নির্বাচিত চেয়ারম্যান আসাদুজ্জামান বাবু বিভিন্ন এলাকা পরিদর্শন করেন। হোম কোয়ারেন্টেনে থাকা সাধারণ জনগণের খোঁজ-খবর নেন। তারই অংশ হিসাবে তলুইগাছার হোম কোয়ারেন্টেনে থাকা ঢাকা থেকে আসেন তজিবার রহমান সরদার এর বাড়িতে গিয়ে খোঁজ-খবর নেন। এ সময় তজিবার রহমান সরদার বলেন দীর্ঘ সময় ধরে আমরা গৃহবন্দি ছিলাম। এসময় এলাকার কোন মানুষ আমাদের কোন প্রকার খোঁজ-খবর নেই নি। এলাকার সবাই আমাদের থেকে মুখ ফিরিয়ে নিয়েছে। আমার পুত্র তুহিনের শরীরে করোনা কোন প্রকার উপসর্গ লক্ষ্য করা যায় নাই। কিন্তু দেশের স্বার্থে সমাজের স্বার্থে সে ঢাকা থেকে ফিরে এসে ঘরে থাকার সিদ্ধান্ত নেয়। পরবর্তীতে প্রশাসন আমার বাড়িতে এসে লাল পতাকা উঠিয়ে যায়। আমাদের কোন প্রকার প্রস্তুতি না থাকার কারণে নানা প্রকার সমস্যার সম্মুখীন হতে হয়েছে। পত্র-পত্রিকায় আমাদের নিয়ে লেখা-লেখির ফলে এলাকার মেম্বার, চেয়ারম্যান আমাদের খোঁজ-খবর নেওয়া শুরু করেছে। এ প্রসঙ্গে উপজেলা চেয়ারম্যান আসাদুজ্জামান বাবু বলেন আমার এলাকায় যতদূর সম্ভব ততদূর নিজস্ব অর্থায়নে সাহায্য সহযোগিতা করার চেষ্টা করছি। তিনি আরো বলেন তলুইগাছার ঘটনা আমার কাছে পৌঁছালে স্থানীয় নেতা-কর্মীদের সাথে-সাথে পাঠিয়ে তজিবারের পরিবারের খোঁজখবর নেওয়ার চেষ্টা করেছি। আমার পক্ষ থেকে সামান্য কয়েক দিনের খাবার দিয়ে ঐ পরিবারকে সাহায্য সহযোগিতা করার চেষ্টা করেছি। এ সময় আরো উপস্থিত ছিলেন উপজেলা ভাইস চেয়ারম্যান কোহিনুর রহমান , বাঁশদহা ইউনিয়ন আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক মাস্টার মফিজুর রহমান, ইউনিয়ন আওয়ামী লীগের সহ-সভাপতি তৌহিদুর রহমান, দপ্তর সম্পাদক সেলিম উদ্দিন। এবং ইউনিয়ন যুবলীগের সভাপতি আব্দুল খালেক। ও ৫ নম্বর ওয়ার্ড সদস্য কামরুল ইসলাম, ৬ নম্বর ওয়ার্ড সদস্য আব্দুল কাদের, ৯ নম্বর ওয়ার্ড সদস্য আব্দুস সামাদ, ৩ নম্বর ওয়ার্ড সদস্য সাবেদ আলী, এছাড়া বাঁশদহা ইউনিয়ন আওয়ামীলীগের একাধিক নেতা কর্মী এসময় উপস্থিত ছিলেন।