অবশেষে সেই নারী এ্যসিল্যান্ড সাইয়েমা প্রত্যাহার

42
উৎপল ঘোষ (ক্রাইম রিপোর্টার ) যশোর ঃ
যশোর মনিরামপুর উপজেলার চিনেডোলা বাজারে প্রকাশ্য দিবালোকে জনসম্নুখে নারী এ্যসিল্যান্ড ভ্রাম্যমান আদালতে ভ্যান চালক ৩ বৃদ্ধকে কান ধরিয়ে উঠবস করানোর ঘটনায় জেলা প্রশাসনের নির্বাহী ম্যাজিষ্ট্রেট ও সহকারী (ভূমি) কমিশনার সাইয়েমা হাসানকে প্রত্যাহার করা হয়েছে। শনিবার জনপ্রশাসন সচিব শেখ ইউসুফ হারুন এ তথ্য প্রতিবেদককে নিশ্চিত করেছেন। তিনি বলেন, এ্যাসিল্যন্ড সাইয়েমা হাসানকে প্রত্যাহারের পর থেকে বিভাগীয় কমিশনারের কার্যালয়ে সংযুক্ত করার নির্দেশনা দেয়া হয়েছে।
ইউসুফ হারুন আরও অভিমত ব্যক্ত করে বলেছেন, অফিস খোলার পর এই ঘৃণিত ঘটনার তদন্ত করা হবে। তদন্ত প্রতিবেদন অনুযায়ী তার বিরুদ্ধে বিভাগীয় ব্যবস্থা নেয়া হবে বলে তিনি জানান। এ ছাড়াও করুনা প্রাদুর্ভাব সময় মাঠ পর্যায়ে সকল কর্মকর্তাকে সরকারি নির্দেশনা আচরণ বিধি মেনে চলার নির্দেশ দেয়া হয়েছে বলেও জানান জনপ্রশাসন সচিব। নোভেল ভাইরাস প্রতিরোধে গতকাল বিকালে উপজেলা (ভূমি)কমিশনার সাইয়েমা হাসানের নেতৃত্বে ভ্রাম্যমান আদালতের মাধ্যমে এ অভিযান পরিচালনা করা হয়। ওই অভিযানে ম্যাস্ক না পরায় ৩ বৃদ্ধকে কান ধরিয়ে উঠবস করান উপজেলা (ভূমি) কমিশনার সাইয়েমা হাসান। সাজা দেওয়ার ঘটনাটি আবার দাম্ভিকতার সাথে নিজের মোবাইল ফোনে ছবি তুলে রাখেন তিনি। ঘটনার দিন রাতেই সেই ছবি সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমে ফেসবুকে ভাইরাল হয়েছে। এর পর থেকে গোটা যশোর জেলা ব্যাপক আলোচনা ও সমালোচনার তীব্র প্রতিবাদের ঝড় ওঠে। এলাকার সচেতন মহল আক্ষেপ করে বলেছেন,পল্লী এলাকার অশিক্ষিত বৃদ্ধদের না বুঝিয়ে দাড়িয়ে কান ধরানো ঠিক করেননি নারী এ্যসিল্যান্ডের। উনি বুঝিয়ে বলে দিতে পারতেন কিংবা তিনটি ম্যাক্স কিনেওতো দিতে পারতেন? সেটা না করে হঠাৎ করেই কান ধরিয়ে ধরিয়ে দিলেন। সবাই হতবাক। ওনার বাড়িতে বৃদ্ধ পিতা আছে কিনা আমরা জানিনা,যদি থাকতো তাহলে এই ঘটনা ঘটাতেন না। বিজ্ঞ মহল ঘটনা তদন্ত পূর্বক দৃষ্ঠান্তমূলক শাস্তির দাবি জানিয়েছেন।