মৃত্যুর গুজব সত্য হলো

105

যশোর সদর থানা প্রতিনিধি :

কাশেম খান নামে এক ব্যক্তির মৃৃত্যুর ভূঁয়া খবর যশোর বসুন্দিয়া এলাকার একটি সিন্ডিকেট কয়েকবার রটায়। পরবর্তীতে  দেখা যায় কাশেম খান  বেঁচে আছে। তবে আজ ২৭ মার্চ খুমেক হাসপাতালে চিকিৎসাধীন অবস্থায় সত্যি মারা যায়।

যশোর সদর উপজেলার ১৫নং বসুন্দিয়া ইউনিয়নে  মৃত হাজী এতেম আলী খানের ছোট ছেলে  আঃকাশেম খান (৪২) দীর্ঘ দিন খুলনা মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে চিকিৎসাধীন  অবস্থায় মারা যান।  গত ১৮/২০ দিন যাবত হসপিটালে ভর্তি থাকা কাশেম খান আজ শুক্রবার বিকাল ৩ টার দিকে ইন্তেকাল করেছেন।

সূত্র জানায়, কাশেম খান দীর্ঘ কয়েক বছর যাবৎ হার্ড/কিডলী রোগে আক্রান্ত ছিলেন। স্থানীয়রা আরো জানান, কাশেম (৪২) দীর্ঘ দিন রোগটি চেপেই বসেছিল তার শরীরে। আবার  ভাবতেই অবাক যে, কিছুদিন আগেও তার ভুঁয়া মৃত্যুর খবর কে বা কারা ছড়িয়েছেল।   এরপর বসুন্দিয়া ইউপি সদস্য  ফিরোজা আক্তার বিষয়টি  খবর নিয়ে দেখে কাশেম খান(৪২)  জীবিত  আছে। এলাকার মানুষ শোকাহত ও মর্মাহত যে লোকটির একাধিক বার মৃত্যু খবর ছড়িয়ে আজ সে আজীবনের জন্য চিরো কবরস্ত হলেন।