খুলনায় কলেজ ছাত্রী অপহরন মামলায় আটক পিতা -পুত্র

প্রেমের প্রস্তাব প্রত্যাখান করায় হুমকি

40

মোঃ জাহিদুর রহমান, ক্রাইম রিপোটার, খুলনা
খুলনা নগরীর বয়রা আনিছ নগর এলাকার মোঃ আজিজুল ইসলামের এর মেয়ে সরকারী জয় বাংলা কলেজের ছাত্রী আলেয়া আক্তার রিফা(১৭) অপহরনের ঘটনায় গতকাল পুলিশ পিতা পুত্রকে আটক করে। গত ১৩ তারিখ শুক্রবার রিফা বয়রা ইন্টারএইড কোচিং সেন্টার থেকে বিকাল আনুমানিক ৪টায়  বাসায় ফেরার পথে বয়রা ইসলামীয়া কলেজ রোড আনিছ নগর ৪ নং রোডে ১৬ নং ওর্য়াডের বাসিন্দা মোঃ খলিল গাজির ছেলে মোঃ হৃদয় হাসান (১৯) সহ অজ্ঞাত চার পাঁচ জন যুবক আলেয়া আক্তার রিফাকে অপহরন করে। মামলার বাদী মোঃ আজিজুল ইসলাম(মাস্টার) মামলায় এজাহারে উল্লেখ করেন বেশ কিছু দিন যাবত খলিলের ছেলে হৃদয় তার বখাটে বন্ধুদের নিয়ে প্রেমের প্রস্তাব দিলে রিফা হৃদয়ের প্রস্তাব প্রত্যাখান করলে তাকে তুলে নিবে বলে হুমকি দিয়ে আসছিলো। মামলায় আরো উলেখ করেন রিফাকে অপহরন করে আসামী হৃদয় তার মামা বাড়ি রূপসা থানার জাবুসা গ্রামে নিয়ে আটকে রাখে। গতকাল শনিবার আনুমানিক রাত ২ টা ৩০ মিনিটের সময় সোনাডাঙ্গা মডেল থানার এস.আই সুকান্ত আমামী হৃদয় ও তার বাবা খলিল গাজিকে গ্রেফতার করলে হৃদয়ের স্বীকার উক্তি অনুযায়ী জাবুসা তার মামা বাড়ি থেকে আলেয়া আক্তার রিফাকে উদ্ধার করা হয়। খুলনা সোনাডাঙ্গা মডেল থানার অফির্সার ইনচাজ মমতাজুল হক ঘটনার সত্যতা স্বীকার করে জানান অপহরন ও নারী নির্যাতন দমন আইন ২০০০ এর ৭/৩০ ধারায় আসামীদের বিরুদ্ধে মামলা দায়ের করা হয়। এই মামলায় পিতা খলিল গাজি ও তার ছেলে হৃদয় হাসানকে গ্রেফতার করে কোটে হস্তাহন্তর করা হয়। পুলিশ পরিদর্শক কুমকুম নাজমুন নাহার মামলাটি তদন্ত ভার গ্রহণ করেন বলে জানান। আলেয়া আক্তার রিফা সরকারী জয় বাংলা কলেজের একাদশ শ্রেনীর শিক্ষাথী।