নেশামুক্ত এলাকা গড়তে চাই : চন্ডীপুর ইউ পি চেয়ারম্যান

108
আরিফুর রহমান সেতু, সিনিয়র স্টাফ রিপোর্টার
নেশামুক্ত এলাকা গড়ে তুলতে ব্যতিক্রমী উদ্যোগ গ্রহন করেছেন নওগাঁর সদর উপজেলার চন্ডীপুর ইউনিয়ন চেয়ারম্যান মোঃ বেদারুল ইসলাম মনির।  নেশার সাথে যারা সংযুক্ত  অর্থাৎ ব্যবসায়ী এবং গ্রহনকারী উভয়কে চিহ্নিত করে তাদেরকে মাদকাসক্তি পূনর্বাসন কেন্দ্রে পাঠান।  যতদিন না ঐ ব্যক্তি সুস্থ হয়ে না ফিরেন ঠিক ততদিন তিনি ঐ ব্যক্তির পরিবারে প্রতিমাসে ৩০ কেজি চাল এবং ২০০০ টাকা তার নিজস্ব তহবিল থেকে প্রদান করেন। এবছরের ফেব্রুয়ারী মাসে তার এলাকায় এমন ৬ টি পরিবার রয়েছে যাদেরকে নেশামুক্ত করতে  মাদকাসক্তি পূনর্বাসন কেন্দ্রে পাঠিয়েছেন তাদের প্রত্যেকের পরিবারে ২০০০ টাকা এবং ৩০ কেজি চাল নিজস্ব তহবিল থেকে প্রদান করেন।
cintv24 এর প্রতিনিধিদের সাথে আলাপনে এর কারন সম্পর্কে তিনি বলেন, যেহেতু ঐ মাদকাসক্ত ব্যক্তি দোষ করেছে তিনি দোষী।  কিন্তু তার উপর নির্ভরশীল তার পরিবার তো আর দোষ করে নি,  বা তার স্ত্রী সন্তান অথবা বাবা মা তো কোন দোষ করেনি।  তাই যাতে ঐ মাদকাসক্ত ব্যক্তি যতদিন না সুস্থ হয়ে ফিরে আসে ততদিন আমি ঐ পরিবারের পুরো ভরণপোষণের দায়িত্ব তো নিতে পারব না তবুও অন্তত যাতে অনাহারে থাকতে না হয় তার জন্যই এ ব্যবস্থা নিয়েছি।
চন্ডীপুর ইউনিয়নে এলাকাবাসীর কাছ থেকে জানা যায় তিনি শুধু মাদকমুক্ত করা ছাড়াও সড়ক দুর্ঘটনায় যাদের পরিবারের সদস্য মারা গেছেন তাদের পরিবারে তাৎক্ষনিক ৫ মন চাল এবং নগদ ২০০০০ টাকা অনুদান দিয়ে সহযোগিতা করেন।  তিনি ২০১৬ সালে চেয়ারম্যান নির্বাচিত হবার পর এ পর্যন্ত ৪ টি পরিবারে এ ধরনের সহায়তা করেছেন। নওগাঁ জেলার ৯৯ টি ইউনিয়নের  মধ্যে মাদকমুক্ত সমাজ গড়তে এক অনন্য নিদর্শন যা জনপ্রতিনিধি হিসেবে যারা আছেন তারা অনুসরন করলে হয়ত খুব দ্রুতই পরিত্রান পাওয়া সম্ভব মাদক নামের এই ভয়াবহ অভিশাপ থেকে।