কসবা উপজেলায় বিশ্ববিদ্যালয় ও গ্যাস ফিল্ডের দাবী

106
জুয়েল ডি সানি, নিজস্ব প্রতিনিধি 

চট্রগ্রাম বিভাগের মধ্যে ব্রাহ্মণবাড়ীয়া একটি অন্যতম জেলা হিসেবে পরিচিত, ব্রাহ্মণবাড়ীয়া জেলা ৯টি উপজেলা নিয়ে গঠিত। ৯টি উপজেলার মধ্যে কসবা উপজেলা একটি আধুনিক উপজেলা হিসেবে পরিচিতি লাভ করেছে। কসবা উপজেলা ১টি পৌরসভা ও ১০ টি ইউনিয়ন দ্বারা গঠিত। কসবা উপজেলার আয়তন ২৯০.৭৮ বর্গ কিলোমিটার (৫১.৮৩৭ একর)। এ উপজেলার উঃপূর্বে আখাউড়া উপজেলা, উত্তরে তিতাস নদী ও ব্রাহ্মণবাড়িয়া সদর উপজেলা, উত্তর পশ্চিমে নবীনগর উপজেলা, দক্ষিণ পশ্চিমে কুমিল্লা  জেলার মুরাদ নগর উপজেলা ও ব্রাহ্মণপাড়া উপজেলা এবং দক্ষিণ ও পূর্বে ভারতের ত্রিপুরা প্রদেশ অবস্থিত। প্রাকৃতিক সৌন্দর্যের এক ঐতিহ্যবাহি স্থান কসবা উপজেলা। তিতাস, সালদা,বিজনা,সিনাই,সাংগুর, বুড়ি,রাজার খাল, অদের খাল, কালিয়ারা নদী একে বেকে কসবার মধ্যে দিয়ে অতিক্রম করে গেছে। কসবা উপজেলা বর্তমানে উন্নয়নের একটি রোল মডেল হিসেবে দৃষ্টান্ত রেখেছে। কসবা উপজেলার উন্নয়ন এবং সমস্যার কথা cintv24 এর বিশেষ প্রতিনিধিদের কাছে তুলে ধরলেন কসবা উপজেলা চেয়ারম্যান, যুগ্ম-আহবায়ক কসবা উপজেলা, জেলা আওয়ামী লীগ সদস্য এডভোকেট মো: রাশেদুল কাওসার ভূইয়া জীবন।

আমাদের কসবা উপজেলা একটি অবহেলিত উপজেলা হিসেবে পরিচিত ছিল। আমরা বর্ডার বেল্ডের মানুষ এর জন্য আমাদের উপজেলাটা উন্নয়ন থেকে পিছিয়ে পড়া উপজেলা হিসেবেই ছিল। ছিলনা যোগাযোগের জন্য রাস্তা, শিক্ষার জন্য স্কুল কলেজ, চিকিৎসার জন্য হাসপাতাল। সীমান্তবর্তী এলাকা হওয়ায় মাদক সন্ত্রাসের বেশ চাপ ছিল এই উপজেলায়।
কিন্তু বর্তমান সাংসদ মাননীয় আইনমন্ত্রী এডভোকেট আনিসুল হক  ক্ষমতায় আসার পর  তার নেতৃত্বে কসবা উপজেলার আমূল পরিবর্তন হয়েছে। দূর্নীতি  মাদক বাল্যবিবাহ সন্ত্রাস দূর করে এলাকায় শান্তি ফিরিয়ে এনেছেন। এলাকার যোগাযোগের জন্য উন্নত রাস্তা, শিক্ষার জন্য স্কুল কলেজ মাদ্রাসা এবং সু-চিকিৎসার জন্য হাসপাতাল প্রতিষ্ঠিত হয়েছে যার ফলশ্রুতিতে  কসবা উপজেলার জনগন স্বাচ্ছন্দ্যে জীবনযাপন করছে। উপজেলা প্রশাসন এবং আইন শৃঙ্খলা বাহিনীর যৌথ উদ্যোগে এলাকা থেকে মাদক সন্ত্রাস জিরো টলারেন্স ঘোষণা করা হয়েছে। তিনি আরো জানান কসবা উপজেলায় অনেক গ্যাসের খনি রয়েছে। এই গ্যাস আমাদের দেশের প্রাকৃতিক সম্পদ। এই গ্যাস যদি উত্তোলন করার উদ্যোগ নেওয়া হতো তাহলে কসবা উপজেলা তথা সারা বাংলাদেশের উন্নয়ন হতো। বর্তমানে শতভাগ বিদ্যুতায়নের ঘোষণা করা হয়েছে কসবা উপজেলাকে এবং ৯৯% হত দরিদ্রদের কে ভাতার মধ্যে নিয়ে আসা হয়েছে। মাননীয় প্রধানমন্ত্রীর যে ২০২১ ভিশন রয়েছে সেই লক্ষ্যে মাননীয় সাংসদ এবং আমি কাজ করে যাচ্ছি।
মাননীয় প্রধানমন্ত্রী জননেত্রী শেখ হাসিনার কাছে কসবা উপজেলা বাসীর প্রাণের দাবি আমাদের সাংসদ মাননীয় আইন মন্ত্রী এডভোকেট আনিসুল হকের মাধ্যমে একটি বিশ্ববিদ্যালয় এবং একটি গ্যাস ফিল্ড স্থাপন করে দেন।