টাঙ্গাইলে ৪ স্কুল ছাত্রীকে আটকে রেখে ধর্ষণ

92
টাঙ্গাইলের ঘাটাইল উপজেলায় স্কুল ফাঁকি দিয়ে বন্ধুদের সঙ্গে ঘুরতে যাওয়া চার ছাত্রীকে আটকে রেখে ধর্ষণ করেছে দুর্বৃত্তরা।

রোববার উপজেলার ঝরকা বনে তাদের উপর নির্যাতন করা হয়। এক ছাত্রীর বাবা বাদী হয়ে আজ সোমবার ঘাটাইল থানায় অপহরণ ও যৌন নির্যাতনের অভিযোগ এনে অজ্ঞাতনামা ৫-৭ জনকে আসামি করে মামলা দায়ের করেছেন।
মামলা ও এলাকাবাসী সূত্রে জানা যায়, বিদ্যালয়ের বার্ষিক মিলাদ মাহফিল থাকায় ওই চার ছাত্রী সকাল ৯টার দিকে স্কুলের উদ্দেশে বাড়ি থেকে বের হয়। পরে তারা স্কুলে না গিয়ে তাদের দুই বন্ধুর সঙ্গে উপজেলার ঝরকা বনে বেড়াতে যায়। সেখানে তাদের আটকে রাখে কয়েকজন দুষ্কৃতিকারী। পরে ছাত্রীদের পরিবারের কাছে মুক্তিপণ দাবি করে। মুক্তিপণ না পেয়ে যৌন নির্যাতন করে পালিয়ে যায় দুর্বৃত্তরা।

চার ছাত্রীর একজনের নানার বাড়ি পাশের এলাকায় হওয়ায়, তারা সেখানে গিয়ে আশ্রয় নেয়। সেখান থেকে রাতে তাদের থানায় নিয়ে আসা হয়।

তাদের ছেলে বন্ধুরা ঘটনার পর থেকে নিখোঁজ রয়েছে।

ঘাটাইল থানার অফিসার ইনচার্জ (ওসি) মো. মাকসুদুল আলম রাইজিংবিডিকে বলেন, থানায় অপহরণ ও যৌন নির্যাতনের মামলা হয়েছে। আসামিদের গ্রেপ্তারের চেষ্টা চলছে।
চার ছাত্রীর ডাক্তারি পরীক্ষা করার জন্য টাঙ্গাইল জেনারেল হাসপাতালে পাঠানো হয়েছে বলে জানান তিনি।

তবে এক ছাত্রীর অভিভাবক বলেন, তার মেয়ে মাতৃহীন; এ কথা জানিয়ে সে দুর্বৃত্তদের কাছে তাকে ছেড়ে দেয়ার জন্য অনুনয় করতে থাকে। তাই তাকে যৌন নির্যাতন করা হয়নি বলে জানান তিনি।