যশোরের অভয়নগর উপজেলায় পৃথক দুটি দুর্ঘটনায় নিহত ৩ আহত -১

117
যশোর থেকে  ওসমান গনি :
গতকাল যশোরের অভয়নগরে পৃথক সড়ক দুর্ঘটনায় তিনজন নিহত হয়েছেন। বুধবার বিকালে যশোর-খুলনা মহাসড়কের প্রেমবাগ গেট সংলগ্ন এলাকায় খুলনাগামী যাত্রীবাহি রুপসা পরিবহন, একটি মোটর সাইকেল ধাক্কা দিলে দুর্ঘটনায় দুইজন নিহত হয়। নিহতরা হলেন যশোরের মণিরামপুর উপজেলার আঠারপাকিয়া গ্রামের শরিফুল ইসলাম (২৯) ও সুজ্জাত হোসেন(২৮)। এ সময় আহত হন জসিম উদ্দিন(৩০)। তাকে খুলনা মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে ভর্তি করা হয়েছে।
স্থানীয়রা জানান, যশোর থেকে শরিফুল ইসলাম ও তার দুই সহযোগি, মোটর সাইকেল যোগে মণিরামপুর বাড়ি ফিরছিলেন। তারা প্রেমবাগ গেট সংলগ্ন এলাকায় পৌছালে খুলনাগামী রূপসা পরিবহনের সাথে সংঘর্ষ হয়। এতে ঘটনাস্থলে শরিফুল ও সুজ্জাত হোসেন নিহত হয়। আহত হয় জসিম উদ্দিন। পরে তাকে উদ্ধার করে খুলনা মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে পাঠানো হয়েছে।
এসময়ে উক্ত এলাকার উত্তেজিত জনতা বাসটিকে আটক করে।  প্রত্যক্ষদর্শী মোহাঃ রেজাউল ইসলাম বলেন, যশোরের থেকে একটি মটরসাইকেল প্রেমবাগ গেটে এসে মহাসড়ক থেকে মনিরোপুর সড়কে নামার জন্য মোড় নেয়। ওই সময়ে একটি বাস সেখানে যাত্রী নামাচ্ছি ছিলো। একই সময়ে খুলানাগামী রুপসা পরিবহনটি থেমে থাকা বাসটিকে অতিক্রম করে দ্রুত যাওয়ার চেষ্টা করলে এ দুর্ঘনাটি ঘটে ।
অপরদিকে, নওয়াপাড়া আকিজ সিটির সামনে বেলা ১১ টায় অপর এক দুর্ঘটনায় জামাল হোসেন নামের এক ব্যক্তি নিহত হন। তিনি জেলার সদর উপজেলার গাইদগাছি গ্রামের বাসিন্দা। তার বাবার নাম হোসেন আলী। জানা যায়, জামাল হোসেন সড়ক মেরামতের কাজে যানবাহন নিয়ন্ত্রনের দায়িত্ব পালন করছিলেন। এ সময়ে খুলনাগামী একটি ট্রাক তাকে চাপা দিলে ঘটনাস্থলে তার মৃত্যু হয়। এ ঘটনার ট্রাকের ড্রাইভার আব্দুল করিম(৬২)কে আটক করেছে অভয়নগর হাইওয়ে থানা পুলিশ। তার বাড়ি অভয়নগর উপজেলার নওয়াপাড়া ঠাকুরপাড়া এলাকায়। এ ঘটনায় থানায় মামলার প্রস্তুতি চলছে।
অভয়নগর থানার অফিসার ইনচার্জ (ওসি) তাজুল ইসলাম ঘটনার সত্যতা স্বীকার করে বলেছেন, পুলিশ লাশ উদ্ধার করে ময়না তকদন্তের জন্য যশোর মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে পাঠিয়েছে।