নুরাবাদ ইউনিয়নের নির্বাচনে ৫ নং ওয়ার্ডে দোয়া চেয়ে ব্যস্ত সময় পার করছেন প্রার্থীরা

161
ভোলার চরফ্যাশন থেকে আরিফুর রহমান সেতু ও রনি মজুমদার এলিসন
আসন্ন ইউনিয়ন পরিষদের সাধারণ নির্বাচনকে কেন্দ্র করে ইতিমধ্যেই জমে উঠেছে প্রচার প্রচারণা। ভোলার চরফ্যাশন উপজেলার দুলারহাট থানার অন্তর্ভুক্ত নুরাবাদ ইউনিয়নের ৫ নং ওয়ার্ড নির্বাচনী এলাকায়  সরেজমিনে গিয়ে এমন দৃশ্যই দেখা গেছে।  প্রায় দীর্ঘ সাড়ে আট বছর নির্বাচন হওয়াতে অনেকেই আশায় বুক বেধে আছেন কাংখিত প্রার্থীকে নির্বাচিত করবেন বলে আবার অনেকেই আছেন জনপ্রতিনিধি হওয়ার স্বপ্ন নিয়ে। এখনো প্রতিক বরাদ্দ না হলেও থেমে  নেই নির্বাচনী প্রচারনা।  নির্বাচনী বিধি নিষেধের কারনে   ভোট চাইতে  না পারলেও ঘরে ঘরে গিয়ে দোয়া চাইছেন মেম্বার পদপ্রার্থীরা। তাই হাট বাজার থেকে চায়ের দোকান, পাড়া মহল্লায় ছড়িয়ে পড়েছে নির্বাচনী আমেজ।

এলাকায় গিয়ে দেখা যায় এবারের নির্বাচনে নুরাবাদ ইউনিয়নের ৫ নং ওয়ার্ড থেকে ইউ পি সদস্য পদে মনোনয়ন পত্র জমা দিয়ে যাচাই বাছাইয়ের পর মাঠে আছেন ৬ জন।
তাদের মধ্যে  সাবেক ৩ নং ওয়ার্ড এর ইউ পি সদস্য মোঃ ফারুক মাতুব্বার। মাতুব্বার বাড়ির মোঃ মোরশেদ আলম নিজাম মাতুব্বার,তিনি ৫ নং ওয়ার্ড আওয়ামী লীগ সভাপতি।  আনিচ আড়তদার বাড়ির আবুল বাশার, তিনি নুরাবাদ ইউনিয়ন শ্রমিকলীগের সভাপতি।  মুঘবুল মুন্সী বাড়ির মোঃ মুনছুর হেলাল,তিনি নুরাবাদ ইউনিয়ন আওয়ামিলীগ এর আইন বিষয়ক সম্পাদক। নুরাবাদ গ্রামের আবদুল মান্নান এর ছেলে আবদুল রহিম এবং সায়েম আলীর ছেলে মোঃ রুহুল আমিন  ইউ পি সদস্য পদে নির্বাচন করছেন। এলাকাবাসীর সাথে আলাপনে তারা cintv24 এর কাছে জানান, এবারের নির্বাচনে তারা একজন সৎ, যোগ্য, জনবান্ধব প্রতিনিধি নির্বাচিত করতে চান যাতে বিপদে আপদে তাদের পাশে এসে দাড়াতে পারেন এবং এলাকার সার্বিক উন্নয়নে অবদান রাখতে পারেন। বিগত দিনের বিভিন্ন সরকারি অনুদান সঠিকভাবে বন্টন হয়নি বলেও দাবি করেন ৫ নং ওয়ার্ড এর সাধারণ ভোটারগন। তাছাড়া তাদের দাবি তারা যেন একটি ভোট উৎসবের মাধ্যমে জনপ্রতিনিধি নির্বাচিত করতে পারে সেই ব্যবস্থা নেয়ার জন্য যথাযথ কর্তৃপক্ষের সুদৃষ্টি কামনা করেন।

প্রার্থীদের সাথে আলাপনে তারাও একটি অবাধ, সুষ্ঠু ও নিরপেক্ষ নির্বাচন করার দাবি জানান যথাযথ কর্তৃপক্ষের নিকট।