আইন-শৃঙ্খলা বাহিনীর আতঙ্কে ক্লাব জুয়াড়িরা ছুটছে আবাসিক হোটেলে

139
মোঃ আল আমিন খান, খুলনা ব্যুরো   
খুলনার ক্রীড়াঙ্গণের ক্লাবগুলোতে অভিযান  থাকা জুয়াড়িরা ছুটছেন আবাসিক হোটেলগুলোতে। কক্ষ ভাড়া নিয়ে রাতভর জুয়া ও মাদকের আসর জমিয়ে রাখছেন তারা। জুয়া ও মাদকের নেশা কোনভাবেই ত্যাগ করতে পারছেন না এ পেশার মানুষ। নতুন পন্থায় জুয়ার আসর শুরু করেছে বলে একাধিক সুত্র থেকে জানা গেছে। এদিকে খুলনার আইন-শৃঙ্খলা বাহিনীর সদস্যরা ইতোমধ্যে নগরীতে প্রায় ২৫টি স্পটে জুয়া পরিচালনা হয় বলে ওই তালিকা উল্লেখ করা হয়েছে। এ সকল স্থানগুলো আইন-শৃঙ্খলা বাহিনীর বিভিন্ন ইউনিটের গোয়েন্দা নজরদারিতে রয়েছে বলে জানা গেছে।নাম প্রকাশে অনিচ্ছুক বেশ কয়েকজন পেশাদার জুয়াড়ির সাথে আলোচনা করে জানা গেছে, খুলনার ক্লাবগুলোসহ বিভিন্নস্থানে নিয়মিত জুয়ার আসরে আইন-শৃঙ্খলা বাহিনীর অভিযানের আতঙ্ক ছড়িয়ে পড়েছে। রাজধানী ঢাকাসহ বেশ কিছু জায়গায় ক্যাসিনো ও ক্লাবে জুয়ার আখড়ায় র‌্যাব-পুলিশের অভিযানের খবরেই খুলনার এ চিত্র বলে জানান তারা। তারা এ প্রতিবেদককে আরও জানান, কিছু পেশাদার জুয়াড়ি রয়েছে, তারা কোনভাবেই জুয়া না খেলে থাকতে পারেনা। এজন্য নগরীর অখ্যাত অনেক আবাসিক হোটেলে কক্ষ ভাড়া নিয়ে রাতভর জুয়ায় নিমজ্জিত হচ্ছেন। তবে তাদের এ সকল জুয়া খেলার বিষয়ে ওই সকল হোটেলের কর্মকর্তা-কর্মচারীরা অবগত রয়েছেন। যেনে বুঝেই মোটা অংকের টাকা রুম ভাড়া দিচ্ছেন তারা। খুলনার প্রশাসনের উচ্চ পর্যায়ে বিষয়টি না জানলেও নিচের দিকের অনেক কর্মকর্তাও এসকল ক্লাব থেকে নিয়মিত চাঁদা পেতেন বলেও অনুসন্ধানে জানা গেছে।