খুলনায় যথাযোগ্য মর্যাদা ও ভাবগাম্ভীর্যের সঙ্গে ঈদ উদযাপনে কর্মসূচি গ্রহণ

197
মোঃ আল আমিন খাঁন, খুলনা ব্যুরো   
পবিত্র ঈদুল ফিতর উদযাপনে খুলনায় প্রায় সব ধরনের প্রস্তুতি সম্পন্ন হয়েছে। প্রস্তুত হয়েছে ঈদগাহগুলো। সরকারি-বেসরকারির প্রতিষ্ঠানগুলোতে আলোকসজ্জারও আয়োজন করা হয়েছে। নেওয়া হয়েছে বিশেষ নিরাপত্তা ব্যবস্থা। খুলনায় যথাযোগ্য মর্যাদা ও ভাবগাম্ভীর্যের সঙ্গে ঈদ উদযাপনে সরকারিভাবে বিভিন্ন কর্মসূচি গ্রহণ করা হয়েছে।
আবহাওয়া অনুকূলে থাকলে ঈদের প্রথম ও প্রধান জামাত অনুষ্ঠিত হবে সকাল আটটায় খুলনা সার্কিট হাউজ ময়দানে এবং দ্বিতীয় ও শেষ জামাত খুলনা টাউন জামে মসজিদে সকাল নয়টায় অনুষ্ঠিত হবে। আবহাওয়া প্রতিকূল হলে টাউন জামে মসজিদে প্রথম ও প্রধান জামাত সকাল আটটায়, দ্বিতীয় জামাত নয়টায় এবং তৃতীয় ও শেষ জামাত ১০টায় অনুষ্ঠিত হবে।খুলনা বিশ্ববিদ্যালয়ে ঈদের নামাজের জামাত সকাল সাড়ে ৭টায় বিশ্ববিদ্যালয়ের নির্মাণাধীন নতুন কেন্দ্রীয় মসজিদে অনুষ্ঠিত হবে। এছাড়া বসুপাড়া ইসলামাবাদ ঈদগাহ ময়দানে, খুলনা আলিয়া কামিল মাদ্রাসা জামে মসজিদ, নিউমার্কেটস্থ বায়তুন-নূর মসজিদ কমপ্লেক্সে, খালিশপুর ঈদগাহ ময়দান, সোনাডাঙ্গা আবাসিক এলাকা বায়তুল্লাহ জামে মসজিদ, নিরালা আবসিক এলাকা ঈদগাহ,দৌলতপুর ঈদগাহসহ অন্যান্য মসজিদ ও ঈদগাহসমূহে সংশ্লিষ্ট কমিটির মাধ্যমে সময় নির্ধারণ সাপেক্ষে ঈদের নামাজ অনুষ্ঠিত হবে।খুলনা সিটি করপোরেশনের ৩১টি ওয়ার্ডে সিটি করপোরেশনের সহায়তায় ও ওয়ার্ড কাউন্সিলরদের তত্ত্বাবধানে পৃথকভাবে নির্ধারিত সময় অনুযায়ী ঈদের জামাত অনুষ্ঠিত হবে। ঈদে শৃঙ্খলা রক্ষার্থে আইন-শৃঙ্খলা রক্ষাকারী বাহিনী মহানগর ও মহানগরের বাইরের বিভিন্ন স্পটে বিশেষ নিরাপত্তা ব্যবস্থা গ্রহণ করবে। খুলনা মেট্রোপলিটন পুলিশের (কেএমপি) মুখপাত্র মনিরুজ্জামান মিঠু বলেন, খুলনার ঈদের প্রধান জামাতে কড়া নিরাপত্তা বেষ্টনী থাকবে। বিশেষ করে সার্কিট হাউজের প্রধান জামাতসহ বড় বড় ঈদগাহে। এদিকে পুলিশের পক্ষ থেকে জানানো হয়েছে, ঈদের সময় আতশবাজি ও পটকা ফোটানো, রাস্তা বন্ধ করে স্টল তৈরি, উচ্চস্বরে মাইক, ড্রাম বাজানো, রঙিন পানি ছিটানো এবং বেপরোয়াভাবে মোটরসাইকেল চালানো যাবে না। বাস, লঞ্চ, স্টিমারে যাতে অতিরিক্ত যাত্রী উঠতে না পারে এবং বেপরোয়াভাবে যান চলাচল করতে না পারে তার জন্য আইন-শৃঙ্খলা বাহিনী নিয়োজিত থাকবে। জেলার শান্তিশৃঙ্খলা বিঘ্নের কোনো খবর পেলে তাৎক্ষণিকভাবে ব্যবস্থা গ্রহন করা হবে বলে জানা যায়।