অস্ট্রেলিয়ার মুসলিমবিদ্বেষী সিনেটরের মাথায় ডিম ভাঙলো : অজি হিরো

578

নিউজিল্যান্ডের দুটি মসজিদে হামলার ঘটনায় বিশ্বব্যাপী মুসলিমদের কুকর্মকারী বলা অস্ট্রেলিয়ার মুসলিমবিদ্বেষী সিনেটর ফ্রাজার অ্যানিংয়ের মাথায় ডিম ভাঙা এক তরুণ এখন দেশটিতে ‘অজি হিরো’ হিসেবে প্রশংসিত হচ্ছেন। এমনকি তাকে চার্জ না করেই ছেড়ে দিয়েছে পুলিশ।

স্থানীয় সময় শনিবার বিকেলে অস্ট্রেলিয়ার মেলবোর্নে একটি সংবাদ সম্মেলনে কথা বলার সময় অ্যানিংয়ের পেছনে দাঁড়িয়ে থাকা এই তরুণ তার মাথায় একটি ডিম ভাঙেন। এসময় তিনি নিজেই এই দৃশ্য তার ফোনে ভিডিও করছিলেন বলে জানিয়েছে অস্ট্রেলিয়াভিত্তিক গণমাধ্যম পেডেসট্রিয়ান।

গণমাধ্যমটিতে প্রকাশিত একটি প্রতিবেদনে বলা হয়, পরিস্থিতি বুঝে ওঠার পর অ্যানিং এবং তার সমর্থকরা চড়থাপ্পড় মারতে শুরু করে ১৭ বছর বয়সী এই তরুণকে। ধস্তাধস্তির একপর্যায়ে তারা তাকে মেঝেতে শুইয়ে ফেলে। পরবর্তীতে অ্যানিংয়ের সমর্থক ও সহযোগীরা তাকে পুলিশের হাতে তুলে দেয়।

এখন কুইন্সল্যান্ডের সিনেটর অ্যানিংয়ের মাথায় ডিম ভাঙা এই তরুণ ‘অজি হিরো’ হিসেবে প্রশংসিত হচ্ছেন বলে জানিয়েছে গণমাধ্যমটি। অন্যদিকে সংখ্যালঘুকে লাঞ্ছিত করার অভিযোগে অ্যানিংয়ের বিরুদ্ধে মামলা হতে পারে বলে মন্তব্য করছেন অনেকে। ইতোমধ্যে তাকে পার্লামেন্ট থেকে সরানোর দাবি উঠেছে। এই ঘটনায় জো নামের একটি টুইটার অ্যাকাউন্ট থেকে করা টুইটে বলা হয়েছে, আমার একজন হিরো আছেন এবং তিনি হলেন ফ্রাজার অ্যানিংয়ের মাথায় ডিম ভাঙা তরুণ।

ডিল্যান লিচ নামের অ্যাকাউন্টের টুইটে বলা হয়, ফলাফল হলো তিনি অলটাইম অস্ট্রেলিয়ান হিরোদের একজন হয়ে গেলেন। ব্র্যাডম্যান, ম্যাককিলপ, কার্টেইন, বানজো, ওয়ার্ন, ম্যাবো…ফ্রাজার অ্যানিংয়ের মাথায় ডিম ভাঙা তরুণ।

এই তরুণকে তাৎক্ষণিক ফ্রাজার অ্যানিংয়ের সিনেট আসনটি দেয়া উচিত বলে টুইট করেছেন রুডি নামের এক টুইটার ব্যবহারকারী।

এর আগে শুক্রবার নিউজিল্যান্ডের মসজিদে হামলার প্রসঙ্গে এই অস্ট্রেলিয়ান সিনেটর বলেন, আজ মুসলিমরা হামলার শিকার হয়েছে, সাধারণত তারাই কুকর্মকারী। বিশ্বব্যাপী মুসলিমরা ‘একটি ইন্ডাস্ট্রিয়াল স্কেলের ওপর’ বিশ্বাসের নামে মানুষ খুন করছে।