বঙ্গোপসাগরে ঝড়ের কবলে নৌবাহিনীর স্পিডবোট, উদ্ধার ৭

705

বঙ্গোপসাগরের মোহনায় নৌবাহিনীর একটি স্পিডবোট ঝড়ের কবলে পড়ে উল্টে গেছে।

সোমবার সকালে চট্টগ্রাম থেকে নোয়াখালীর ভাসানচরে যাওয়ার পথে এই দুর্ঘটনা ঘটে।

তবে জেলেদের তৎপরতায় বোটটিতে থাকা দুই কর্মকর্তাসহ সাত ব্যক্তি উদ্ধার হন। আন্ত:বাহিনী জনসংযোগ পরিদপ্তর (আইএসপিআর) দুর্ঘটনার কারণ ও উদ্ধারের বিষয়টি নিশ্চিত করেছে।

কুমিরা ইউনিয়ন পরিষদের চেয়ারম্যান মোরশেদ হোসেন চৌধুরী বলেন, আজ সকাল থেকে আকাশ মেঘলা ছিল। এর মধ্যে আটটার দিকে বজ্রসহ ঝড়ো হাওয়া শুরু হয়। পরে শিলাবৃষ্টিও হয়। বেলা ১১টার দিকে সীতাকুণ্ডের জেলেরা সাগরে ভাসতে থাকা কয়েকজন নৌবাহিনীর সদস্যকে উদ্ধার করে উপকূলে নিয়ে আসে।

পরে নৌবাহিনীর একটি হেলিকপ্টার এসে তাদের নিয়ে যায়। আইএসপিআরের সহকারী পরিচালক রাশেদুল আলম খান বলেন, সকাল সাড়ে ১০টার দিকে চট্টগ্রাম থেকে নৌবাহিনীর দুই কর্মকর্তা ও পাঁচ নাবিক একটি স্পিডবোটে ভাসানচরের দিকে যাচ্ছিলেন।

স্পিডবোটটি বঙ্গোপসাগরের মোহনায় সীতাকুণ্ড অংশ বরাবর গেলে ঝড়ের কবলে পড়ে উল্টে যায়। কিছু সময় পর সীতাকুণ্ডের জেলেরা তাদের উদ্ধার করেন। পরে খবর পেয়ে নৌবাহিনীর হেলিকপ্টার গিয়ে তাদের নিয়ে আসে। রাশেদুল আলম খান জানান, আহত ব্যক্তিরা বাংলাদেশ নৌবাহিনী ঘাঁটি (বানৌজা) ঈশাখাঁ হাসপাতালে চিকিৎসাধীন। তারা সবাই আশঙ্কামুক্ত।