সাতক্ষীরা বাঁশদহার বিভিন্ন শিক্ষা প্রতিষ্ঠানে আন্তজার্তিক মাতৃভাষা দিবস পালন

405

সাতক্ষীরা থেকে বদরুজ্জামান খোকা : 

একুশে ফেব্রয়ারী বাঙ্গালীর জাতীয় জীবনে একটি গৌরবউজ্বল দিন। এটি মহান শহীদ দিবস ও আন্তজার্তিক মাতৃভাষা দিবস হিসাবে সুপরিচিত। ১৯৫২ সালের এই দিনে বাংলা কে পূর্ব পকিস্থানের অন্যতম রাষ্ট্রভাষা করার দাবিতে আন্দলনরত ছাত্রদের ওপর পুলিশের গুলিবর্ষনে কয়েক জন তরুন সালাম,বরকত,রফিক,জব্বার শহীদ হন। তাই এই দিনটি শহীদ দিবস হিসাবে পরিচিত হয়ে আছে। ভাষার জন্য আন্দোলন করে শহীদ হন এইদেশের অনেক যুবক তাই বর্তমান সরকারের মাননীয় প্রধান মন্ত্রী শেখ হাসিনা বিশ্বের দরবারে বাংলা ভাষা কে আন্তজার্তিক মাতৃভাষা হিসাবে প্রতিষ্ঠিত করেন। আজ বৃহস্পতিবার ২১ শে ফেব্রয়ারী সুর্যদয়ের সাথে সাথে জাতীয় পতাকা অর্ধ নমিত করা হয়। সেই সাথে সাতক্ষীরা সদর উপজেলার বিভিন্ন শিক্ষা প্রতিষ্ঠানে মহান শহীদ দিবস ও আন্তজার্তিক মাতৃভাষা দিবস পালন করা হয়েছে। ছাত্র/ছাত্রীদের মধ্যে হাতের লেখা সুন্দর ও ভাষা শহীদের উপরে বিশেষ রচনা প্রতিযোগিতা এবং চিত্র অংকন অনুষ্ঠিত হয়। প্রতিযোগিতায় অংশ গ্রহন কারীদের প্রথম,দ্বিতীয়,তৃতীয় নির্বাচিত করে পুরুষ্কৃত করা হয়। এসময় বিভিন্ন শিক্ষা প্রতিষ্ঠান যেমন, আলহাজ্ব মোহাম্মদ আলী দাখিল মাদরাসা,বাঁশদহা সরকারী প্রাথমিক বিদ্যালয়,কুলিয়াডাঙ্গা সরকারী সরকারী প্রাথমিক বিদ্যালয়,ভবানীপুর সরকারী প্রাথমিক বিদ্যালয়,টেংরা সরকারী প্রাথমিক বিদ্যালয়,কাজিপাড়া সরকারী প্রাথমিক বিদ্যালয়,সাতানী ভাদড়া সরকারী প্রাথমিক বিদ্যালয়, বি,কে আর্দশ বালিকা বিদ্যালয়ে সরকারী নিয়মানুসারে যথাযথ ভাবগাম্ভির্যর মধ্যে দিয়ে বিভিন্ন অনুষ্ঠান পালন করতে দেখা যায়। এসময় বাঁশদহা কমিউনিটি ক্লিনিক বাঁশদহা বাজার ডাক্তার খানা ও সীমান্ত রিপোর্টাস ক্লাব বাঁশদহায় মহান শহীদ দিবস ও আন্তজার্তিক মাতৃভাষা দিবসটি উৎসব মুখর পরিবেশ পালন করা হয়।