বাগেরহাটের টুকরো সংবাদ

419

বাগেরহাট এমপিও ভুক্তির দাবিতে শিক্ষক-কর্মচারীদের মানববন্ধন
॥ বাগেরহাট প্রতিনিধি ॥
স্বীকৃতিপ্রাপ্ত নন-এমপিও প্রতিষ্ঠানের শিক্ষক-কর্মচারীদের এমপিও ভুক্তির দাবিতে মানববন্ধণ কর্মসূচি পালিত হয়েছে। মঙ্গলবার দুপুরে বাগেরহাট প্রেসক্লাবের সামনে নন-এমপিও শিক্ষা প্রতিষ্ঠান শিক্ষক-কর্মচারী ফেডারেশনের ব্যানারে এ মানবন্ধন হয়। মানববন্ধনে বক্তব্য দেন, নন-এমপিও শিক্ষা প্রতিষ্ঠান শিক্ষক-কর্মচারী ফেডারেশনের বাগেরহাট জেলা সভাপতি মাওঃ মোঃ মনিরুজ্জামান, সাধারণ সম্পাদক মোঃ আব্দুর রাজ্জাক, প্রভাষক মাওলানা তাওহিদুল ইসলাম, মোঃ তরিকুল ইসলাম, মাও: আবুবক্কর সিদ্দিক প্রমুখ।
বক্তারা বলেন, স্বীকৃতিপ্রাপ্ত নন-এমপিও স্কুল, কলেজ, মাদ্রাসা ও কারিগরি শিক্ষা প্রতিষ্ঠানের শিক্ষক-কর্মচারীরা ১০ থেকে ২৫ বছর যাবৎ ২০ লক্ষাধিক শিক্ষার্থীদের পাঠদান করে আসছে। কিন্তু এমপিও না হওয়ায় লক্ষাধিক শিক্ষক-কর্মচারীরা বিনা বেতনে মানবেতর জীবনযাপন করছে। যা অত্যন্ত কষ্টকর, বেদনাদায়ক ও অমানবিক। বিভিন্ন সময় এমপিও ভুক্তির আশ্বাস দেয়া হলেও বাস্তবায়ণ করা হয় নাই। এ অবস্থায় শিক্ষক-কর্মচারীরা খুবই হতাশ। অতিদ্রুত নন-এমপিও শিক্ষক-কর্মচারীদের অতিদ্রুত এমপিও ভুক্তি করে লক্ষাধিক পরিবারকে সুষ্ঠ জীবন-যাপন করার ব্যবস্থা করতে প্রধানমন্ত্রীর হস্তক্ষেপ কামনা করেন শিক্ষকরা। মানববন্ধন শেষে জেলা প্রশাসকের মাধ্যমে প্রধানমন্ত্রী বরাবর স্মারকলিপি প্রদান করেন শিক্ষকরা।

বাগেরহাটে বিআরডিবি কর্মচারীদের মানববন্ধন
বাগেরহাট প্রতিনিধি
বাগেরহাটে রাজস্ব খাত থেকে বেতনের দাবিতে স্থানীয় সরকার পল্লী উন্নয়ন ও সমবায় মন্ত্রণালয়ের প্রতিষ্ঠান উপজেলা কেন্দ্রীয় সমবায় সমিতি (ইউসিসিএ) এর কর্মচারীরা মানববন্ধন কর্মসূচি পালন করেছে। মঙ্গলবার সকালে বাগেরহাট প্রেসক্লাবের সামনে জেলার সকল ইউসিসিএ-র সদস্যরা এ মানবন্ধন করেন।
মানববন্ধনে বক্তব্য দেন, ইউসিসিএ লিঃ কর্মচারী ইউনিয়ন, বাগেরহাট জেলা শাখার সভাপতি সাধারণ সম্পাদক মারুফ হোসেন, হাবিবুর রহমান হিরু, চাকলাদার আলী হোসেন, আল মামুন, তাছলিমা প্রমুখ।
বক্তারা বলেন, অবিলম্বে ইউসিসিএ কর্মচারীদের চাকুরী রাজস্ব খাতে স্থানান্তর করতে হবে। ২০১২ সাল থেকে সকল বকেয়া বেতন ভাতা প্রদান এবং ২০১২ সালে যারা চাকুরী শেষে অভসরে গিয়েছে তাদের সকল বকেয়া বেতন ভাতাসহ অবসরকালীন সকল সুযোগ সুবিধা নিশ্চিত করার দাবি জানান বক্তারা।
মানববন্ধন শেষে জেলা প্রশাসকের মাধ্যমে প্রধানমন্ত্রী বরাবর স্মারকলিপি প্রদান করেন কর্মচারীরা।

বাগেরহাটে স্বেচ্ছাসেবকলীগ নেতার বিরুদ্ধে ক্রয়কৃত সম্পত্তি দখলের অভিযোগ
বাগেরহাট প্রতিনিধি.
বাগেরহাট সদর উপজেলার কাড়াপাড়া ইউনিয়ন স্বেচ্ছাসেবকলীগ সভাপতি মানিক শেখের (৪০) বিরুদ্ধে অন্যের ক্রয়কৃত সম্পত্তি দখল করে জোরপূর্বক মৎস্য চাষ ও খরিদকৃত সম্পত্তি সার্বেয়ার দ্বারা পরিমাপের সময় বাধা প্রদানের অভিযোগ পাওয়া গেছে। এজন্য ভূক্তভোগী বাদি হয়ে বাগেরহাট পুলিশ সুপার বরাবর এক লিখিত অভিযোগ দায়ের করেছেন।
অভিযোগ সূত্রে জানা যায়,বাগেরহাট সদর উপজেলার পাটরপাড়া গ্রামের মৃত শেখ আঃ জলিলের পুত্র মোঃ শামীম শেখ (৩৬) পাটরপাড়া মৌজা হতে ডাংগা জমি ৪০ শতাংশ ও খোন্তাকাটা মৌজার ২৬ শতাংশ জমি খরিদ করে। জমি ক্রয়ের পর ১৫ই ফেব্রুয়ারী খোন্তাকাটা মৌজার ২৬ শতাংশ জমি যার (মৌজা নং-১২০,খতিয়ান নং- এস.এ ৩০৭,২৭৮) বিক্রেতা,সার্বেয়ার ও স্থানীয় ব্যক্তিবর্গদের সাথে নিয়ে জমি বুঝে পাওয়ার জন্য সরেজমিনে উপস্থিত হন। জমি মাপার কথা জানতে পেরে জমি মাপার এক পর্যায়ে দক্ষিন পাটরপাড়া গ্রামের ইমালদ্দিন শেখের ছেলে মানিক শেখ (৪০) ও তার স্ত্রী কাকলী বেগম (২৫) ঘটনাস্থলে ছুটে আসে এবং জমি পরিমাপ করতে বাধা প্রদানসহ অশ্লীল ভাষায় গালিগালাজ করে। স্ত্রী কাকলী বেগম হুমকি দিয়ে বলে পুনরায় এই জমি পরিমাপ করিতে আসলে নারী নির্যাতনসহ বিভিন্ন মামলা দিয়ে এলাকা ছাড়ার ও হুমকি দেন তিনি। এ সময় জেলা সার্বেয়ার মোঃ কুদ্দুস মোল্লাকে মারতে ধরতে উদ্যত হয় এবং মাপের ফিতা ছিড়ে ফেলে।
মামলার আইও এস আই মোঃ রফিকুল ইসলাম জানান,আমি ঘটনাস্থল পরিদর্শন করেছি। দুই তিন দিনের মধ্যে দুই পক্ষকে বিষয়টি মিমাংসার জন্য ডাকা হবে।

সরকারি পিসি কলেজে মহিলা পরিষদের কমিটি গঠন
বাগেরহাট প্রতিনিধি
বাগেরহাট সরকারি প্রফুল্ল চন্দ্র (পিসি) কলেজে বাংলাদেশ মহিলা পরিষদের কমিটি গঠন হয়েছে। সোমবার রাতে সকালে গনিত ৩য় বর্ষের শিক্ষার্থী ইসরাত জাহান ইভাকে সভাপতি এবং ইংরেজী ৩য় বর্ষের অর্প মন্ডলকে সাধারণ সম্পাদক করে ২৫ সদস্যের তরুনি কমিটি ঘোষনা করা হয়।
পিসি কলেজ ছাত্রী নিবাস হল রুমে কমিটি গঠন অনুষ্ঠানের আলোচনা সভায় বক্তব্য দেন, সরকারি পিসি কলেজের সহযোগী অধ্যাপক তীর্থাংকর বাছার, বাগেরহাট জেলা মহিলা পরিষদের সাধারণ সম্পাদক এ্যাড. পারভীন আহমেদ, লিগ্যাল এইড সম্পাদক রিজিয়া পারভীন, জোসনা দেবনাথ, নাদিরা আকরাম, তহমিনা বেগম, মাহবুবা রহমান পিয়া প্রমুখ।
কমিটির অন্যান্য সদস্যরা হলেণ, সহ-সভাপতি ইসরাত জাহান ইভা, ইলোরা ঢালী, নিলুফা ইয়াসমিন, মন্দিরা রানী চৈতি, সালমা আক্তার, সাদিয়া সুলতানা, সহ-সাধারণ সম্পাদক সাথী বিশ্বাস, অর্থ সম্পাদক সুমাইয়া সুলতানা, সাংগঠনিক সম্পাদক সুবর্ণা আক্তার, লিগ্যাল এইড সম্পাদক জুই চৌধূরী, আন্দোলন সম্পাদক মরিয়াম তেরেসা মিথিলা, প্রশিক্ষণ ও পাঠাগার সম্পাদক শিবানী রায়, স্বাস্থ্য সম্পাদক সুমাইয়া শারমিন, সমাজ কল্যান সম্পাদক মরিয়াম হোসেন নদী, প্রচার ও প্রকাশনা সম্পাদক রাবেয়া ইসলাম, শিক্ষা ও সংস্কৃতি সম্পাদক তপু বিশ্বাস, দপ্তর সম্পাদক নাঈমা আক্তার। নির্বাহী সদস্য তামান্না আক্তা, রুমা আক্তার, রুনা লায়লা, ডেইজি রাকা, ফাতেমা আক্তার, তুলি সরকার, সুমা আক্তার।