কথিত অশ্লীল মডেলে সানাই ডিবি হেফাজতে

1734

কথিত মডেল ও নায়িকা সানাই মাহবুব সুপ্রভাকে জিজ্ঞাসাবাদের জন্য পুলিশের গোয়েন্দা শাখার (ডিবি) কার্যালয়ে নেয়া হয়েছে। রোববার (১৭ ফেব্রুয়ারি) দুপুর ৩টার দিকে সানাইকে ডিবি কার্যালয়ে নিয়ে আসে পুলিশের সাইবার নিরাপত্তা ও অপরাধ দমন বিভাগের সদস্যরা।

গুঞ্জন শোনা যাচ্ছে, টিকটক ও ফেসবুকে খোলামেলা এবং অসামাজিক কথাবার্তা বলে যুবসমাজকে অবক্ষয়ের দিকে ঠেলে দিচ্ছিলেন সানাই। এসব কারণেই নাকি তাকে জিজ্ঞাসাবাদের জন্য আনা হয়।

সাইবার সিকিউরিটি অ্যান্ড ক্রাইম বিভাগের অতিরিক্ত উপপুলিশ কমিশনার মো. নাজমুল ইসলাম বলেন, ইন্টারনেটে অপেশাদার ও অপ্রাসঙ্গিক ভিডিও ছড়ানোর অভিযোগে অভিনেত্রী সানাই মাহবুব সুপ্রভাকে জিজ্ঞাসাবাদের জন্য নিয়ে আসা হয়েছে।

এদিকে ডিবি পুলিশের হেফাজতে থেকে নিজের ফেসবুক আইডি দিয়ে লাইভে এসে নিজের কৃতকর্মের জন্য ক্ষমা চান সানাই।

তিনি বলেন, সবাইকে একটি বিশেষ ম্যাসেজ দিতে চাই। আমার সমালোচিত কন্টেন্টগুলো কোনও বিশেষ উদ্দেশ্য বা আর্থিক লাভের আশায় করিনি। সাইবার ক্রাইম ইউনিটে এসে আমার বিশেষভাবে অনুধাবন হয়েছে যে কোনও শ্রেণির লোক বিশেষ করে শিশুরা যাদের বয়স ১৮ বছরের নিচে তারা ক্ষতিগ্রস্ত হতে পারে। এটা নিশ্চিতভাবেই আমার ভুল ছিল। আমি এদেশের একজন নাগরিক হিসেবে এদেশের সুস্থ সংস্কৃতির বিকাশে এদেশের আইন মেনে চলে একজন ভালো শিল্পী হতে চাই। ইতিপূর্বে আমার ব্যক্তিগত বা যৌথভাবে করা বিব্রতকর ছবি বা ভিডিওর জন্য দুঃখিত।

জানা গেছে, ডাক টেলিযোগাযোগ ও তথ্য প্রযুক্তিমন্ত্রী মোস্তাফা জব্বারের নেতৃত্বে নিরাপদ ইন্টারনেট ক্যাম্পেইনের অংশ হিসেবে আজ সানাইকে জিজ্ঞাসাবাদের জন্য নেয়া হয়। সানাই নিজের ভুল বুঝতে পারায় তাকে মুচলেকা নিয়ে ছেড়ে দিয়েছে পুলিশ।