বাংলাদেশে বৃটেনের ভ্রমণ সতর্কতা

526

বাংলাদেশ সফরে আসা বা আসতে চাওয়া নাগরিকদের সতর্ক করেছে বৃটিশ সরকার। বৃটিশদের অন-এরাইভাল ভিসা ও বাংলাদেশে নির্বাচনী সহিংসতার বিষয়ে সতর্কতা আপডেট করে একটি বিবৃতি প্রকাশ করা হয়েছে দেশটির পররাষ্ট্র মন্ত্রণালয়ের ওয়েবসাইটে। এতে বলা হয়েছে, ‘সাধারণত বাংলাদেশে পৌঁছামাত্র এক মাস মেয়াদি অন এরাইভাল ভিসা দেয়া হয়। কিন্তু ২৪শে ডিসেম্বর আমরা রিপোর্ট পেয়েছি যে, কিছু পর্যটকের ভিসার মেয়াদ কমিয়ে দেয়া হয়েছে।

এক্ষেত্রে ভিসার মেয়াদ ফুরিয়ে গেলে জরিমানার ঝুঁকি রয়েছে’। ওই বিবৃতিতে ৩০ শে ডিসেম্বর অনুষ্ঠেয় জাতীয় নির্বাচনের ইস্যু সামনে তুলে আনা হয়। বলা হয়, ১০ই ডিসেম্বর থেকে ২৯ শে ডিসেম্বর পর্যন্ত নির্বাচনী প্রচারণার সময়। বিভিন্ন গ্রুপ ও আইন প্রয়োগকারী সংস্থার মধ্যে সংঘর্ষ অথবা বিশৃংখল পরিস্থিতি এই পুরোটা সময় ধরে চলতে পারে।

এরই মধ্যে রাজনৈতিক উদ্দেশ্যপ্রণোদিত সহিংসতা ও বিস্ফোরক ডিভাইস ব্যবহারের রিপোর্ট পাওয়া গেছে।

তাই বৃটিশ নাগরিকদের এ সময়ে বাংলাদেশে বড় কোনো সমাবেশ ও রাজনৈতিক র‌্যালি এড়িয়ে চলতে পরামর্শ দেয়া হয়েছে। এতে আরো বলা হয়, ২০১৭ সালের আগস্টে শুরু হওয়া মিয়ানমারে রোহিঙ্গাদের বিরুদ্ধে নৃশংসতা অব্যাহত আছে। এ ঘটনায় কমপক্ষে ৭ লাখ ২০ হাজার রোহিঙ্গা পালিয়ে এসে বাংলাদেশে ঠাঁই নিয়েছে। তারা অবস্থান করছে কক্সবাজারের উখিয়া ও টেকনাফে। ওই এলাকায় আসা-যাওয়া নিয়ন্ত্রণ করছে বাংলাদেশ কর্তৃপক্ষ।

তাই ওই এলাকা সফরে গেলে সর্বশেষ পরিস্থিতি সম্পর্কে স্থানীয় কর্তৃপক্ষের সঙ্গে পরামর্শ করতে এবং সতর্কতা অবলম্বনের অনুরোধ জানানো হয়েছে। বিবৃতিতে আরো বলা হয়েছে, বাংলাদেশে আরো সন্ত্রাসী হামলা চালাতে পারে সন্ত্রাসীরা। এ হুমকি সারা দেশের জন্য প্রযোজ্য।