সমাজের নির্মমতা কেড়ে নিল নবজাতক শিশুটির প্রাণ : খুমেকে নেওয়ার পথে মৃত্যু

426

মো. আলামিন খাঁন , (সিআইএন টিভি২৪ ডেক্স )

অবশেষে সমাজের নিষ্ঠুর নির্মমতা শিকার হলো নড়াইল জেলার এক নবজাতক শিশু। অবশেষে খুলনা  মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে উন্নত চিকিৎসার জন্য আনার পথে মৃত্যুর  কোলে ঢোলে পড়ে ওই নবজাতক।

জানাযায়, নড়াইল একটি  বাগানে ফেলে যাওয়া নবজাতক শিশুটিকে অবশেষে বাঁচনো গেল না।  মৃত্যুর সঙ্গে লড়াই করে হেরে গেল নবজাতক শিশুটি। গতকাল মঙ্গলবার রাত ৯ ঘটিকার সময় উন্নত চিকিৎসার জন্য খুলনা মেডিকেল হাসপাতালে নেওয়া হয় কিন্ত কর্তব্যরত ডাক্তার শিশুটিকে দেখে বলেন শিশুটিকে আনার পথেই তার মৃত্যু হয়। চন্ডিবরপুরের নিধিখোলা গ্রামের যুবক মলয় জানান, দুপুর ১২ টার দিকে একজন পুরুষ ও একজন মহিলা একটি মটরসাইকেল এসে শিশুটিকে ওই গ্রামের একটি মেহগনি বাগানে ফেলে দ্রুত গতিতে পালিয়ে যায়। একই গ্রামের বাসিন্দা ফিরোজা বেগম বলেন তারা একটি শিশুর কান্নার শব্দ শুনতে পায় এসে দেখে শিশুটির নাড়ি এখন ও কাটা হয় নি পরে তিনি শিশুটিকে উদ্ধার করে শরীর থেকে নাড়ি কেটে দেন শীতে দুর্বল হয়ে পড়ায় নবজাতক কে আগুনের তাপ দিয়ে একটু সুস্থ করে নড়াইল সদর হাসপাতালে ভর্তি করা হয় নড়াইল সদর হাসপাতালের চিকিৎসক রোকসানা বিনতে আকবর জানান, প্রসবের পর প্রায় আড়াই ঘন্টা শিশুটি বিনা পরিচর্যায় ছিলো। এ ছাড়া শীতে বাগানে পরে থাকায় নবজাতকের অবস্থার অবনতি হয়।