খুলনা মহানগর যুবদল-ছাত্রদলের মিছিলে হামলায় আহত ১১

402

গতকাল  বুধবার ২১ আগস্ট গ্রেনেড হামলা মামলাকে কেন্দ্র করে খুলনা মহানগরীর কে ডি ঘোষ রোডের বিএনপি কার্যালয়  দিনভর অবরুদ্ধ করে রাখে পুলিশ। এসময়  বিএনপি কার্যালয়ের ২ পাশে ব্যারিকেড দেয় বিপুল সংখ্যক পুলিশ। বেলা সাড়ে ১১টায় নগর বিএনপির সভাপতি নজরুল ইসলাম মঞ্জু ও ১২টায় জেলা সাধারণ সম্পাদক আমীর এজাজ খান দলীয় কার্যালয়ে যান। এছাড়া অন্য নেতাকর্মীদেরকে পুলিশ দলীয় কার্যালয়ের দিকে যেতে দেয়নি। বিকালেও দলীয় কার্যালয় অবরুদ্ধ ছিল।
এদিকে ঘোষিত রায়ের প্রতিবাদে খুলনা জেলা যুবদল ও ছাত্রদল দুপুর ১টায় নগরীর রয়্যাল মোড় থেকে বিক্ষোভ মিছিল বের করে। মিছিলটি পিটিআই মোড়ের দিকে যাওয়ার সময় ছাত্রলীগের নেতাকর্মীরা মিছিলে হামলা চালায়। হামলায় ১১ জন আহত হন।
খুলনা  জেলা বিএনপি’র অভিযোগমতে , তাদের মিছিলে ছাত্রলীগ নেতাকর্মীরা লাঠি ও ধারালো অস্ত্র নিয়ে হামলা চালায়। এতে ১১ জন নেতাকর্মী আহন হন। তাদের বিভিন্ন হাসপাতালে চিকিৎসা দেওয়া হয়।
আহতরা হলেন জেলা যুবদলের সাধারণ সম্পাদক ইবাদুল হক রুবায়েদ, সহ-সভাপতি শেখ কচি, দপ্তর সম্পাদক জি এম রাসেল, যুগ্ম সম্পাদক হাবিবুর রহমান বেলাল, যুবদল নেতা হেমায়েত রশিদ, জেলা ছাত্রদলের সভাপতি আবদুল মান্নান, সাধারণ সম্পাদক গোলাম মোস্তফা তুহিন, সাংগঠনিক সম্পাদক গাজী শহিদুল ইসলাম, সমাজসেবা সম্পাদক জাহিদুল ইসলাম, ছাত্রনেতা ইমতিয়াজ সুজন ও মহানগর ছাত্রদলের সহ-সাংগঠনিক সম্পাদক জাফর ইকবাল।
এদিকে খুলনা সদর থানার ওসি হুমায়ুন কবীর বলেন, হামলার কোনো ঘটনা ঘটেনি বা কেউ আহত হয়নি।