খুলনার ক্রিসেন্ট জুট মিলের সময় রক্ষক মিরাজের বিরুদ্ধে  অর্থ আত্মসাৎ মামলার তদন্তে দুদক

422

খুলরার খালিশপুরের দি ক্রিসেন্ট জুট মিলস্ কোম্পানি লিমিটেডের সময় রক্ষক (সাময়িক বরখাস্ত) মোঃ মিরাজ হোসেনের বিরুদ্ধে ৪২ লাখ ৫৩ হাজার ৮৭৯ টাকা আত্মসাতে মামলা হয়েছে। গত ২৮ সেপেম্বর মিলের উপ-মহাব্যবস্থাপক (প্রশাসন) আহমাদ হোসাইন বাদী হয়ে খালিশপুর থানায় মামলাটি দায়ের করেন। মিরাজ হোসেন খালিশপুর বিআইডিসি রোডস্থ ক্রিসেন্ট বাজার এলাকার মোঃ সরোয়ার হোসেনের ছেলে।
এদিকে খালিশপুর থানার অফিসার ইনচার্জ মামলাটি তদন্তের জন্য নথী দুর্নীতি দমন কমিশন (দুদক) সমন্বিত জেলা কার্যালয় খুলনায় প্রেরণ করেছেন। গতকাল বুধবার মূলনথী আদালতে উপস্থাপন করা হলে মুখ্য মহানগর হাকিম কনিকা বিশ্বাস তা গ্রহণ করে আগামী ৩০ অক্টোবরের প্রতিবেদন দাখিলের দিন ধার্য করেছেন। দুদক জিআরও মোঃ মোখলেছুর রহমান এ বিষয়টি নিশ্চিত করেছেন।
মামলার বিবরণে জানা যায়, দি ক্রিসেন্ট জুট মিলস্ কোম্পানি লিমিটেডের পাট বিভাগে কর্মরত সময় রক্ষক সাময়িক বরখাস্ত মোঃ মিরাজ হোসেন ২০১২-১৩ অর্থ বছর হতে ২০১৭-১৮ অর্থ বছর পর্যন্ত শ্রমিক হাজিরা খাতায় বদলী শ্রমিকদের নামে ভুয়া হাজিরা ও উৎপাদন দেখিয়ে সর্বমোট ৪২ লাখ ৫৩ হাজার ৮৭৯ টাকা আত্মসাৎ করেন। এছাড়া তিনি ২০১৭-১৮ অর্থ বছরে তার পিতা পাট বিভাগের যাচনদার মোঃ সরোয়ার হোসেনের নামে ভুয়া হাজিরা ও উৎপাদনের মাধ্যমে ৮২ হাজার ৩৯২ টাকা আত্মসাৎ করেছেন। যা তদন্ত কমিটির নিকট প্রতীয়মান হয়েছে। এ ঘটনায় মিলের উপ-মহাব্যবস্থাপক (প্রশাসন) আহমাদ হোসাইন বাদী হয়ে খালিশপুর থানায় মিরাজ হোসেনের বিরুদ্ধে ৪২০/৪০৯ ধারায় মামলা দায়ের করেন (নং-৪৬)।