বাগেরহাট মোরেলগঞ্জে আ’লীগের ২ নেতা হত্যায় চেয়ারম্যানসহ আটক ৪

409

 

বাগেরহাটের মোরেলগঞ্জ উপজেলায় বাড়িঘর ভাংচুর ও আওয়ামী লীগের দুই নেতা হত্যাকা-ে জড়িতদের শাস্তি দাবিতে বিক্ষোভ মিছিল করেছে এলাকাবাসী। এ হত্যাকা-ে জড়িত থাকার অভিযোগে ইউপি চেয়ারম্যানসহ ৪ জনকে আটক করেছে পুলিশ।
মঙ্গলবার সকাল ১১টার দিকে উপজেলার দৈবজ্ঞহাটি বাজার থেকে বিক্ষোভ-মিছিলটি বের করা হয়। এসময় দৈবজ্ঞহাটি ইউনিয়ন পরিষদের (ইউপি) চেয়ারম্যান ফকির শহিদুল ইসলামসহ তার সহযোগীদের ফাঁসি চেয়ে স্লোগান দেয় মিছিলে অংশগ্রহণকারীরা।
জানা যায়, হত্যাকা-ের পর থেকে এলাকায় থমথমে অবস্থা বিরাজ করছে। পুলিশ এ হত্যাকা-ে ব্যবহৃত আগ্নেয়াস্ত্র-গুলি ও ধারাল অস্ত্রসহ আলমত জব্দ করেছে। ঘটনাস্থল দৈবজ্ঞহাটি ইউনিয়ন পরিষদসহ আশপাশ এলাকায় অতিরিক্ত পুলিশ মোতায়েন করা হয়েছে। এদিকে হত্যাকা-ে জড়িত থাকার অভিযোগে চেয়ারম্যানসহ ৪ জনকে আটক করেছে পুলিশ।
আটকরা হলেন- দৈবজ্ঞহাটি ইউপি চেয়ারম্যান ফকির শহিদুল ইসলাম, একই এলাকার ইয়াকুব আলীর ছেলে দফাদার আবুয়াল হোসেন ফকির, হাতেম আলীর ছেলে আবুল শেখ এবং করিম ডাকুয়ার ছেলে জুলহাস ডাকুয়া।
তাদের ডিবি কার্যালয়ে রেখে জিজ্ঞাসাবাদ করা হচ্ছে। তবে এ ঘটনার ২০ ঘন্টা পার হলেও এখন পর্যন্ত মামলা হয়নি।
হামলায় আহত দৈবজ্ঞহাটি ইউনিয়ন তাঁতীলীগের শ্রমবিষয়ক সম্পাদক বাবলু শেখ বলেন, দৈবজ্ঞহাটি ইউপি চেয়ারম্যান শহীদুলের সাথে স্থানীয়ভাবে আমাদের রাজনৈতিক বিরোধ রয়েছে। সেই বিরোধের জেরে সোমবার বিকেলে চেয়ারম্যান ফকির শহীদুল ইসলামের অস্ত্রধারী ক্যাডার’রা বাড়ি থেকে আনসার ভাইকে এবং বাজার থেকে শকুরসহ আমাকে জোর করে ইউনিয়ন পরিষদে ধরে নিয়ে যায়। সেখানে নিয়ে আমাদের সবাইকে বোরকা পরায়। এসময় তার ক্যাডার বাহিনী ধারাল অস্ত্র ও লাঠিসোটা নিয়ে আমাদের ওপর হামলা চালায়।
দৈবজ্ঞহাটি ইউনিয়ন আওয়ামী লীগের সভাপতি কিসলুর রহমান খোকন জানান, বিএনপি-জামায়াত সরকার ক্ষমতায় থাকাকালীন যুবদল নেতা শহীদুল ফকির আওয়ামী লীগ অফিস ভাংচুরসহ অনেক অত্যাচার নির্যাতনকারী। তাকে নৌকা প্রতীকে চেয়ারম্যান বানানোর পর থেকে এখানে আওয়ামী লীগের মধ্যে আভ্যন্তরীণ কোন্দল প্রকাশ্য রূপ নেয়। আর এই নোংরামীর জন্য আমাদের জনপ্রিয় নেতা আনাসার আলী দিহিদারকে হত্যা করা হয়েছে। তার স্ত্রী মঞ্জু বেগমের দুটি পা ভেঙে দিয়েছে।
বাগেরহাট পুলিশ সুপার (এসপি) পঙ্কজ চন্দ্র রায় বলেন, হত্যাকা-ের ঘটনায় চেয়ারম্যানসহ চারজনকে আটক করা হয়েছে। আটক চেয়ারম্যানের লাইসেন্স করা একটি শটগান ও তিটি কার্তুজ জব্দ করা হয়েছে। এছাড়া চেয়ারম্যানের হেফাজতে থাকা একটি দেশি রিভলবার এবং দুই রাউন্ড গুলি, একটি দেশি ওয়ান সুটারগান, তিন রাউন্ড বন্দুকের কার্তুজ এবং একটি কুড়াল জব্দ করা হয়েছে।
তিনি বলেন, বর্তমানে এলাকার আইন-শৃঙ্খলা পরিস্থিতি স্বাভাবিক রয়েছে। ফের সংঘর্ষ এড়াতে এলাকায় অতিরিক্ত পুলিশ মোতায়েন করা হয়েছে। এ হত্যাকা-ের ঘটনায় মোরেলগঞ্জ থানায় মামলা দায়েরের প্রস্তুতি চলছে।
সোমবার বিকেলে আধিপত্য বিস্তার নিয়ে বাগেরহাটের মোরেলগঞ্জে প্রতিপক্ষের হামলায় ইউনিয়ন আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক আনছার আলী দিহিদার (৫৩) এবং যুবলীগ নেতা শুকুর আলী (৪৮) নিহত হন। এ ঘটনায় আরও দুইজন আহত হয়েছেন।